দিনাজপুরে সাব-রেজিষ্ট্রার জেলে, দুই উপজেলায় ভোগান্তিতে গ্রাহক

0
48
sub resigter

sub resigterদিনাজপুরের পার্বতীপুর ও ঘোড়াঘাট এই দুই উপজেলায় সাব-রেজিষ্ট্রার জেলে থাকায় এক সপ্তাহ ধরে কোনো জমি বেচা-কেনা হয়নি। এছাড়া রেজিষ্ট্রি হয়নি কোনো দলিল। কেউ পায়নি কোনো ডুপলিকেট দলিল।

গত রোববার থেকে বৃহস্পিতিবার পর্যন্ত এই অবস্থা বিরাজ করছে দুই উপজেলায়। ফলে ভোগান্তিতে পড়েছে জমি ক্রয়-বিক্রয় করতে আসা মানুষজন। অলস সময় কাটাচ্ছে দুই উপজেলার নকল নবীশ, দলিল লেখক ও অফিসের কর্মকর্তা-কর্মচারীরা।

জানা যায়, গত ১৪ফেব্রুয়ারি শুক্রবার গভীর রাতে পার্বতীপুরে কর্মরত ও ঘোড়াঘাটের অতিরিক্ত দায়িত্বে থাকা সাব-রেজিষ্ট্রার খলিলুর রহমান সরকার কুড়িগ্রাম জেলার নাগেশ্বরী উপজেলার পাবলিক ক্লাবে জুয়া খেলার সময় তার ৬ জন পার্টনার নিয়ে ভ্রাম্যমাণ আদালতের কাছে ধরা পড়েন। জুয়া খেলার অপরাধে ছয় সঙ্গীসহ সাব-রেজিষ্টার খলিলুর রহমান সরকারকে কুড়িগ্রাম জেলার নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট মিজানুর রহমান এক মাস করে বিনাশ্রম কারাদণ্ড প্রদান করেন।

এদিকে, পার্বতীপুরে সাব-রেজিষ্ট্রার অফিস সূত্র জানায়, গত রোববার থেকে সাব-রেজিষ্ট্রার খলিলুর রহমান সরকার কর্তৃপক্ষের বিনা অনুমতিতে কর্মস্থলে অনুপস্থিত রয়েছেন।

এ ব্যাপারে জানতে চাইলে দিনাজপুর জেলা রেজিষ্ট্রার রণজিৎ কুমার সিংহ ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, পার্বতীপুরের সাব-রেজিষ্ট্রার খলিলুর রহমান সরকারের এক মাসের সাজা হয়েছে। তার বিরুদ্ধে সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয়ে বিভাগীয় ব্যবস্থা নেওয়ার জন্য অবগত করা হয়েছে। দু’একদিনের মধ্যে চিঠি পেলেই পার্বতীপুরে অন্যকোনো সাব-রেজিষ্ট্রারকে নিয়োগ দেওয়া হবে বলে তিনি জানান।