‘শেখ হাসিনা জনগণের ট্রেন মিস করে মালবাহী ট্রেনে উঠে গেছেন’

0
77
mossarraf-

mossarraf-শেখ হাসিনা ভুল করে মালবাহী ট্রেনে উঠে গেছেন। আমরা জনগণের ট্রেনে ওঠার অপেক্ষায় আছি। সে ট্রেন এখনও আসেনি বলে মন্তব্য করেছেন বিএনপির জাতীয় স্থায়ী কমিটির সদস্য ড. খন্দকার মোশাররফ হোসেন।

বিএনপি নির্বাচনের ট্রেন মিস করেছে সরকারের এমপি-মন্ত্রীদের এমন বক্তব্যের জবাবে তিনি  এ কথা বলেন।

শনিবার দুপুরে জাতীয় প্রেসক্লাব মিলনায়তনে একুশ ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস উপলক্ষে জাতীয়তাবাদী সামাজিক সাংস্কৃতিক দল (জাসাস) আয়োজিত এক আলোচনা সভায় তিনি এ কথা বলেন।

মোশাররফ বলেন, ৫ তারিখের অবৈধ নির্বাচনের মাধ্যমে গঠিত বর্তমান হাসিনা সরকার একটি অসাংবিধানিক, অস্বাভাবিক সরকার। এরা জনগণের ভাষা বুঝতে চায় না।

ফ্যাসিস্ট স্বৈরাচারী সরকার দেশের জনগণের টুটি চেপে ধরেছে বর্তমান সরকারের এমন সমালোচনা করে মোশারফ বলেন, এই সরকার  জনগণের বুকের উপর চেপে বসেছে। বেগম খালেদা জিয়া নেতৃত্বে আন্দেলনের মাধ্যমে এদেরকে ক্ষমতা থেকে টেনে-হিঁছড়ে নামানো হবে।

পাকিস্তানি শাসক গোষ্ঠি যেভাবে আমাদের অধিকার হরন করেছিল ঠিক তেমনি এই ফ্যাসিষ্ট সরকার দেশেমানুর ষের অধিকার হরন করছে এমন অভিযোগ করে বিএনপির এই নেতা বলেন,  দেশে এখন সত্য কথা বলতে গেলে তাকে হামলা-মামলা, গুম-খুন, নির্যাতনের শিকার হতে হয়।

বাংলাদেশে দেশী-বিদেশী বিনিয়োগ বন্ধ হয়ে গেছে উল্লেখ করে তিনি বলেন, দেশে আজ যুগসন্ধি চলছে। এমন অবস্থা এর আগেও হয়েছিল এই আওয়ামী লীগের আমলেই।

তিনি বলেন, অতীতেও আওয়ামী লীগের হাতে গণতন্ত্রের মৃত্যু হয়েছে,  এরা ৭৫সালে গণতন্ত্র হত্যা করে এক দলীয় বাকশাল কায়েম করেছে। আজও এরা গণতন্ত্রকে হত্যা করছে।

শহীদ প্রেসিডেন্ট জিয়াউর রহমান দেশে গণতন্ত্র প্রতিষ্ঠা করেছে এমন দাবি করে তিনি বলেন, শহীদ জিয়ার উত্তরসুরী খালেদা জিয়া আজ আবার গণতন্ত্র প্রতিষ্ঠার জন্য সংগ্রাম করে যাচ্ছে। এই সংগ্রামের জয় সুনিশ্চিত।

তিনি বলেন, একুশ এদেশের মানুষের প্রথম সফল আন্দোলন। একুশের সফরতার ফলে এদেশে স্বাধীকার আন্দোলন হয়েছে। স্বাধীনতা আন্দোলন হয়েছে। দেশের মানুষের অধিকার প্রকিষ্ঠা হয়েছে।

তিনি আরো বলেন, আজ দেশে অপসংস্কৃতির মহউৎসব চলছে। দেশে অপসংস্কৃতির যে আগ্রাসন চলছে একুশের চেতনায় উজ্জীবিত হয়ে তা প্রতিহত করতে হবে।

৫ জানুয়ারীর নির্বাচন নিয়ে তিনি বলেন, এদেশের মানুষ যেভাবে ৫ তারিখের নির্বাচন গ্রহণ করেনি তেমনি ভাবে বিশ্ব সম্প্রাদয়ও এই নির্বাচন গ্রহন করেনি। জাতিসংঘ সহ সভাই সবার অংশগ্রহনে আবার নির্বাচনের আহ্বান জানিয়েছে।

আলোচনা সভায় আরো উপস্থিত ছিলেন, জাসাসের সভাপতি এম এ মালেক, সাধারন সম্পাধক মনির খান, কবি আল মাহমুদ সহ অনেকে।

জেইউ/