ঝিনাইদহে একুশের বই মেলায় আ.লীগের হামলা, আহত ৩

0
75
hamla

hamlaঝিনাইদহে একুশে বই মেলার সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানে হামলা চালিয়েছে আওয়ামী লীগের কর্মীরা। এসময় তারা মঞ্চ, চেয়ার ভাংচুর ও ইটপাটকেল নিক্ষেপ করে। এতে ৩ জন সাংস্কৃতিক কর্মী আহত হয়।

শুক্রবার রাত ৮টায় জেলা শহরের প্রাণকেন্দ্র পুরাতন ডিসিকোর্ট চত্বরের সাংস্কৃতিক মঞ্চে এ হামলার ঘটনা ঘটে।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানায়, শুক্রবার থেকে জেলা প্রশাসনের আয়োজনে ৭ দিনব্যাপী একুশের বই মেলা শুরু হয়। সকালে মেলার উদ্বোধন করেন জেলা প্রশাসক শফিকুল ইসলাম। সন্ধ্যায় শুরু হয় সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান। জেলা শিল্পকলা একাডেমির শিল্পীরা মঞ্চে সংগীত পরিবেশন শুরু করলে অতর্কিত হামলা চালায় আওয়ামী লীগের কর্মীরা। এসময় মঞ্চ, চেয়ার-টেবিল ভাংচুর করে তারা। এতে আহত হয় শিশু সংগীত শিল্পী রজত বিশ্বাসসহ ৩ জন।

অনুষ্ঠান দেখতে আসা জেলা প্রশাসকের স্ত্রী, পুলিশ সুপারের স্ত্রীসহ আমন্ত্রিত অতিথিরা দৌঁড়ে নিরাপদে চলে যায়। এই হামলায় বইমেলা পণ্ড হয়ে যায়। মুর্হূতের মধ্যেই আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়ে সাধারণ মানুষের মাঝে।

খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে প্রশাসনের বিরুদ্ধে পক্ষপাতিত্বের অভিযোগ এনে নতুন নির্বাচনের দাবি জানিয়ে আসছে আওয়ামী লীগ। এ নির্বাচনে জয়ী হয় বিএনপি সমর্থিত প্রার্থী আব্দুল আলিম।তারা ডিসি শফিকুল ইসলামের প্রত্যাহার চেয়ে নির্বাচনের পরের দিনই সংবাদ সম্মেলন করে স্থানীয় প্রেসক্লাবে। এরপর থেকে আওয়ামী লীগ নেতাকর্মীরা জেলা প্রশাসনের অনুষ্ঠান বয়কট করে আসছে।এরই জের ধরে শুক্রবার জেলা প্রশাসন আয়োজিত বইমেলায় হামলা ও ভাংচুর চালায় তার।

এদিকে ঝিনাইদহ জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক অ্যাড. আজিজুর রহমান একুশের বই মেলায় হামলা প্রসঙ্গে তিনি কিছুই জানেন না বলে জানান।

ঝিনাইদহ জেলা প্রশাসক শফিকুল ইসলাম জানান, একুশের বই মেলায় সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানে হামলা হয়েছে। তবে কারা, কেন হামলা চালিয়েছে সে ব্যাপারে কিছু বলেননি তিনি।

কেএফ