মাতৃভাষা ইনস্টিটিউট সব ভাষার চর্চা করবে: প্রধানমন্ত্রী

sheikha-hasina

sheikha-hasinaআন্তর্জাতিক মাতৃভাষা ইনস্টিটিউট সব ভাষার চর্চা করবে। মাতৃভাষার মর্যাদা রক্ষা করবে এবং সব জাতির মাতৃভাষা সংরক্ষণ করবে বলে আশা প্রকাশ করেন আওয়ামী লীগ সভাপতি ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

এ সময় তিনি এক রফিক রক্ত দিয়ে ভাষার মর্যাদা রেখেছেন আরেক রফিক উদ্যোগ নিয়ে আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস হিসেবে একুশে ফেব্রুয়ারিকে স্বীকৃতি দিয়েছেন বলে মন্তব্য করেন।

শুক্রবার বিকেলে আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা ইনস্টিটিউটে বক্তব্য দেওয়ার সময় এসব কথা বলেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। এ সময় তিনি সেখানে আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবসের চার দিনব্যাপী সেমিনারেরও উদ্বোধন ঘোষণা করেন।

আজ আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা ইনস্টিটিউটে বক্তব্যের শুরুতে প্রধানমন্ত্রী একুশে ফেব্রুয়ারিকে আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস হিসেবে স্বীকৃতি দেওয়ার জন্য যারা উদ্যোগ নিয়েছিলেন সেই  প্রবাসী রফিক ও সালামের প্রতি শ্রদ্ধা জানান।

তিনি বলেন, সবদেশের রাষ্ট্রপ্রধান ও সরকার প্রধানের কাছে ভাষা আন্দোলনের তথ্য ও ছবি পাঠানো হয়েছে। আর এ কারণেই খুব অল্প সময়ের মধ্যেই আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস হিসেবে একুশে ফেব্রুয়ারি স্বীকৃতি পেয়েছে।

তিনি আরও বলেন, পৃথিবীর খুব কম দেশই আছে যে দেশের মানুষ মাতৃভাষা রক্ষার জন্য আত্মত্যাগ করেছে। আমাদের দেশের মানুষ সবসময় নিজেদের অধিকার প্রতিষ্ঠার জন্য সংগ্রাম করে আসছে। বাঙালি জাতি কখনো একাত্ত রের ঘাতকদের কাছে মাথা নত করেনি।

১৯৭৫ সালের ১৫ আগস্টের পর একাত্তরের পরাজিত শক্তি আবার বাংলাদেশের স্বাধীনতার চেতনায় আঘাত হানে বলে মন্তব্য করেন প্রধানমন্ত্রী।

তিনি বলেন, ২০০১ সালের পর থেকে বাংলাদেশ আবার দুর্নীতিগ্রস্ত, জঙ্গিবাদ, মানি লন্ডারিংয়ের দেশে পরিণত হয়েছিল। তবে, এসব থেকে বাংলাদেশ এখন বের হয়ে এসেছে। আমরা সমুন্নত রাখতে পারব। বাংলাদেশকে ক্ষুধা ও দারিদ্র্যমুক্ত দেশ হিসেবে গড়ে তুলতে পারব, আর এই বিশ্বাস আমার আছে।