মাঠ চষে বেড়াচ্ছেন কুমিল্লার ৯ উপজেলার ১২৫ প্রার্থী
বৃহস্পতিবার, ২৪শে সেপ্টেম্বর, ২০২০ খ্রিস্টাব্দ
today-news
brac-epl
প্রচ্ছদ » চট্টগ্র্রাম

মাঠ চষে বেড়াচ্ছেন কুমিল্লার ৯ উপজেলার ১২৫ প্রার্থী

কুমিল্লা মানচিত্রউপজেলা পরিষদ নির্বাচনকে ঘিরে কুমিল্লার ৯ উপজেলায় প্রার্থীরা জোরেশোরে প্রচারণায় নেমেছেন। মাঠে রয়েছেন ১৯ দলীয় ও ১৪ দলীয় জোটের সমর্থিত ও বিদ্রোহীসহ ১২৫ প্রার্থী। বিদ্রোহী প্রার্থীদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য স্থানীয়ভাবে দফায় দফায় বৈঠক করেও সমাধানে পৌছতে না পারায় স্বতন্ত্র প্রার্থীরাও আঁটঘাট বেঁধে প্রচারণায় নেমেছেন। দিন-রাত অবিরাম প্রার্থীরা ছুটছেন ভোটারদের দ্বারে দ্বারে। উঠান বৈঠক, গণসংযোগ, সভা-সমাবেশ চলছে প্রতিনিয়ত।

নির্বাচন কমিশন ৪টি তফসিল ঘোষণা করলেও প্রথম তফসিলে কুমিল্লার কোন উপজেলা ছিল না। দ্বিতীয় তফসিলে জেলার দেবিদ্বার, লাকসাম ও মনোহরগঞ্জ উপজেলার নাম ঘোষণা করা হয়েছে। ওই উপজেলাগুলোতে ইতোমধ্যে চেয়ারম্যান পদে ১১ জন, ভাইস চেয়ারম্যান পদে ১২ জন এবং মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান পদে ৮ জনসহ ৩১ জনের মধ্যে প্রতীক বরাদ্দ দেয়া হয়েছে।

এদিকে তৃতীয় তফসিলে ঘোষিত অনুযায়ী কুমিল্লা জেলা রিটার্নিং অফিসার ও জেলা নির্বাচন অফিসার রাসেদুল ইসলাম জানান, ছয় উপজেলায় ১০৭ প্রার্থীর মনোনয়নপত্র যাচাই-বাছাই কালে চেয়ারম্যান পদে ৩৬, ভাইস চেয়ারম্যান পদে ৩৯ ও মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান পদে ১৮ প্রার্থীসহ ৯৪ প্রার্থীর মনোনয়ন বৈধ ঘোষণা করা হয়েছে। হলফনামা স্বাক্ষর ও ঋণ খেলাপীর অভিযোগে ১৩ জন প্রার্থী মনোনয়ন বাতিল করা হয়েছে।

তৃতীয় তফসিলে ঘোষিত জেলার হোমনা, তিতাস, বুড়িচং, ব্রাহ্মণপাড়া, নাঙ্গলকোট ও চৌদ্দগ্রাম উপজেলায় প্রার্থীদের মনোনয়নপত্র  জমা দেয়ার শেষ হয় শনিবার। মনোনয়নপত্র জমা দেওয়ার শেষ মুহুর্তে ৬ উপজেলায় চেয়ারম্যান পদে ৪৫ জন, ভাইস চেয়ারম্যান পদে ৪২জন ও মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান পদে ২০ প্রার্থীর মনোনয়নপত্র জমা দেন।

এর মধ্যে বুড়িচং উপজেলায় চেয়ারম্যান পদে ৮, ভাইস চেয়ারম্যান পদে ১১ ও মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান পদে ৫ জন রয়েছে। ব্রাহ্মপাড়া উপজেলায় চেয়ারম্যান পদে ৮, ভাইস চেয়ারম্যান পদে ৯ ও মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান পদে ২জন। হোমনা উপজেলায় চেয়ারম্যান পদে ৫, ভাইস চেয়ারম্যান পদে ৪ ও মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান পদে ৩ জন। তিতাস উপজেলায় চেয়ারম্যান পদে ৮, ভাইস চেয়ারম্যান পদে ৮ ও মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান পদে ৫জন। চৌদ্দগ্রাম উপজেলায় চেয়ারম্যান পদে ৭, ভাইস চেয়ারম্যান পদে ৩ ও মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান পদে ২জন। ওই ৬ উপজেলায় মনোনয়নপত্র জমাকৃত চেয়ারম্যান প্রার্থীদের মধ্যে বুড়িচংয়ে বিএনপি’র একক প্রার্থী মিজানুর রহমান থাকলেও আওয়ামীলীগের ৪ প্রার্থী ও জামায়াত ইসলামীর ২ প্রার্থীর মনোনয়ন জমা হয়েছে। ব্রাহ্মনপাড়া উপজেলায়ও বিএনপি একক প্রার্থীর বিপরীতে আওয়ামীলীগের ৬ প্রার্থী, হোমনা উপজেলায় বিএনপি’র একক প্রার্থী এড. আজিজুর রহমান মোল্লার বিপরীতে আওয়ামীলীগের ৩ ও এক স্বতন্ত্র প্রার্থী রয়েছে। তিতাস উপজেলায় বিএনপি’র ২ প্রার্থীর বিপরীতে আওয়ামীলীগের ৩ প্রার্থী ও তিন স্বতন্ত্র প্রার্থী রয়েছে। নাঙ্গলকোটে বিএনপি’র ২ প্রার্থী, আওয়ামীলীগের ৩ প্রার্থী, জাতীয়পার্টির একক প্রার্থী ও স্বতন্ত্র ৫ প্রার্থী রয়েছে। একমাত্র চৌদ্দগ্রাম উপজেলায় আওয়ামীলীগের একক প্রার্থীর বিপরীতে বিএনপি’র ৩ প্রার্থী, ইসলামী ঐক্যজোটের ১ ও স্বতন্ত্র ২ প্রার্থী রয়েছে।

মনোনয়ন জমা দেয়ার পর ৬ উপজেলার যাচাই বাছাই শেষে ৯ জন চেয়ারম্যান ও ভাইস চেয়ারম্যান ৪ জনসহ ১৩ জনের মনোনয়ন বাতিল করা হয়। এর মধ্যে বুড়িচং একজন করে চেয়ারম্যান ও ভাইস চেয়ারম্যান প্রার্থীর মনোনয়ন বাতিল হয়।

তিতাস উপজেলায় মনোনয়ন বাতিল হয় ১ চেয়ারম্যান প্রার্থীর,  চৌদ্দগ্রাম উপজেলায় ৩ চেয়ারম্যান, নাঙ্গলকোটে ৪ চেয়ারম্যান ও ২ ভাইস চেয়ারম্যান প্রার্থীর মনোনয়ন বাতিল হয়।

ব্রাহ্মণপাড়া উপজেলায় কোনো প্রার্থীর মনোনয়নপত্র বাতিল না হওয়ায় উপজেলায় চেয়ারম্যান পদে ৭, ভাইস চেয়ারম্যান পদে ৯ ও মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান পদে ২জন চূড়ান্তভা্বে মনোনয়ন পেয়েছেন।

হোমনা উপজেলায়ও কোনো প্রার্থীর মনোনয়নপত্র বাতিল হয়নি। এ উপজেলায় চেয়ারম্যান পদে ৫, ভাইস চেয়ারম্যান পদে ৪ ও মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান পদে ৩ প্রার্থীর মনোনয়নপত্র বহাল রয়েছে।

আগামি ১৫ মার্চ ভোট গ্রহণ অনুষ্ঠিত হবে।  এ নির্বাচনকে সামনে রেখে প্রার্থীরা ভোটারদের কাছে টানার চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে।

এই বিভাগের আরো সংবাদ