বাংলাদেশ হচ্ছে এশিয়ার পরবর্তী অর্থনৈতিক টাইগার: মজীনা

mojina

mojinaকবি রবীন্দ্রনাথের সোনার বাংলা গড়ার আহ্বান জানিয়ে বাংলাদেশে নিযুক্ত আমেরিকান রাষ্ট্রদূত ড্যান মজীনা বলেছেন, বাংলাদেশ তলাবিহীন ঝুড়ি নয়। বাংলাদেশ হচ্ছে এশিয়ার পরবর্তী অর্থনৈতিক টাইগার।

মঙ্গলবার বিকেলে রাজশাহী মহানগরীর বিলসিমলায় আমেরিকান কর্নারের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে বাংলাদেশে নিযুক্ত মার্কিন রাষ্ট্রদূত ড্যান মজীনা এসব কথা বলেন।

বাংলাদেশকে একটি অপার সম্ভাবনার দেশ উল্লেখ করে তিনি বলেন, বাংলাদেশ এমন একটি দেশ হবে যেখানে সকলের পরিবারের জন্য নিরাপদ আশ্রয়, পর্যাপ্ত ও পুষ্টিকর খাদ্য, সু-স্বাস্থ্যসেবা এবং মানসম্মত শিক্ষার সুযোগ থাকবে।

আমেরিকায় অধ্যয়নরত বাংলাদেশি শিক্ষার্থীর সংখ্যা দশগুণ বৃদ্ধি করার আশা প্রকাশ করে ড্যান মজীনা বলেন, এই সংখ্যাটি প্রতিবছর ১৫ শতাংশ করে বৃদ্ধি পাচ্ছে। তবে আমি চাই আরও অধিক সংখ্যক বাংলাদেশি সেখানে পড়তে যাবে। বিশেষ করে রাজশাহী থেকে, যাতে তারা দু’দেশের মধ্যে সেতু গড়ে তুলতে পারে।

মার্কিন রাষ্ট্রদূত বলেন, এ আমেরিকান কর্নার ছাত্র, শিক্ষকসহ পুরো রাজশাহীর জনগোষ্ঠীকে আমেরিকা, আমাদের সংস্কৃতি, আমাদের মূল্যবোধ সম্পর্কে জানার, বোঝার সুযোগ করে দিবে। আমাদের অভিজ্ঞতা থেকে এবং কষ্টার্জিত জ্ঞান সম্বন্ধে জানার সুযোগ করে দিবে। এ কর্নারের মাধ্যমে গণতন্ত্রের আদর্শ ও মূল্যবোধ, ব্যক্তি স্বাধীনতা ও দায়িত্ব, গণতন্ত্রে সুশীল সমাজ যে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে তার প্রতি আমেরিকা ও বাংলাদেশের সংকল্পের প্রতিফলন ঘটবে বলে আশা প্রকাশ করেন তিনি।

তিনি বলেন, নতুন এই স্থানটি জানার ও শেখার কেন্দ্র হিসেবে পরিণত হবে। দর্শনার্থীরা শত শত বই ও চলচ্চিত্র, ইন্টারনেট, শিক্ষা সংশ্লিষ্ট জার্নাল ও আরও অনেক কিছু ব্যবহার করার সুযোগ পাবেন। পাশাপাশি আমেরিকান উচ্চতর শিক্ষায় সুযোগ পেতে প্রয়োজনীয় পরীক্ষার প্রস্তুতির জন্য শিক্ষার্থীরা বিভিন্ন সামগ্রী ব্যবহারের সুযোগ পাবেন।

ড্যান মজিনা বলেন, আপনাদের জনগোষ্ঠীর সদস্যগণ ইতোমধ্যে আমেরিকার এই বিনিময় কর্মসূচিতে অংশগ্রহণ করেছেন, যেখানে তারা নারীর ক্ষমতায়ন, এনজিও উন্নয়ন ও প্রকৃতিক দুর্যোগ ব্যবস্থাপনার মতো বিষয়াদি নিয়ে কাজ করেছেন। এই কর্ণারটি অংশগ্রহণকারীদের নিজ অভিজ্ঞতা বিনিময়ের সুযোগ প্রদান করবে এবং অন্যদের এই সুযোগগুলো সম্বন্ধে জানার সুযোগ করে দিবে

এ অনুষ্ঠানে অন্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন, রাজশাহী সদর আসনের সাংসদ ফজলে হোসেন বাদশা, সিটি মেয়র মোসাদ্দেক হোসেন বুলবুল, রাবি উপাচার্য মুহাম্মদ মিজানউদ্দিনসহ বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয় ও কলেজের শতাধিক শিক্ষার্থী ও অভিভাবকবৃন্দ।

অনুষ্ঠানের শেষে রাষ্ট্রদূত ফিতা কেটে রাজশাহী আমেরিকান কর্ণারের উদ্বোধন করেন।

উল্লেখ্য, ল্যাঙ্গুয়েজ প্রফিসিয়েন্সি সেন্টারের সঙ্গে অংশিদারিত্বে গঠিত রাজশাহী আমেরিকান কর্ণার রাজশাহীর জনগোষ্ঠীকে ৭৯ লাখ টাকার শিক্ষা সংশ্লিষ্ট সামগ্রী, কম্পিউটার সামগ্রী ও শিক্ষা সংশ্লিষ্ট অনলাইন তথ্যাদি ব্যবহারের সুযোগ প্রদান করবে। এই কর্ণারটি ঢাকা, চট্টগ্রাম, সিলেট ও খুলনায় গঠিত দেশব্যাপী আমেরিকান স্থাপনার নেটওয়ার্কের সঙ্গে এবং বিশ্বব্যাপী ৪০০ এর ও অধিক আমেরিকান স্থাপনার নেটওয়ার্কের সঙ্গে যুক্ত হয়েছে।