বৃহস্পতিবার শুরু হচ্ছে প্লাস্টিক মেলা

0
91
প্লাস্টিক মেলা

প্লাস্টিক মেলাআগামি বৃহস্পতিবার শুরু হচ্ছে ৯ম ঢাকা আন্তর্জাতিক প্লাস্টিক মেলা- ২০১৪। এখন চলছে শেষ মুহূর্তের প্রস্ততি। এবারের মেলা প্লাস্টিক শিল্পে নতুন সাড়া পড়বে বলে মনে করছেন আয়োজকরা।

বাংলাদেশ প্লাস্টিক দ্রব্য প্রস্তুত ও রপ্তানিকারক অ্যাসোসিয়েশন (বিপিজিএমইএ) ও তাইওয়ানের চাং চাও ইন্টান্যাশনাল কোম্পানি যৌথভাবে এ মেলার আয়োজন করছে। ঢাকার বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে অনুষ্ঠেয় ৪ দিন ব্যাপী মেলা শেষ হবে ২৩ ফেব্রুয়ারি।

মেলা প্রতিদিন সকাল ১০টা থেকে রাত ৮টা পর্যন্ত চলবে। এবারের মেলায় কোনো প্রবেশ মূল্য রাখা হয়নি।

কয়েক মাসের রাজনৈতিক অস্থিরতার প্রভাব না কাটলেও একটা ভালো সাড়া আশা করছেন বিপিজিএমইএ।

সংগঠনটি বলছে, কয়েক মাসের রাজনৈতিক অস্থিরতায় রপ্তানি বাণিজ্যে নেতিবাচক প্রভাব পড়েছে। রাজনৈতিক অস্থিতিশীলতার কারণে প্লাস্টিক খাতে ৪ হাজার কোটি টাকা ক্ষতি হয়েছে। তবে এই নেতিবাচক প্রভাব থেকে বেরিয়ে আসতে এবারের মেলা বড় ভূমিকা পালন করবে বলে মনে করছে সংগঠনটি।

সংগঠনটির সাধারণ সম্পাদক কে. এম ইকবাল হোসাইন অর্থসূচককে জানান, ‘আমরা আশা করছি প্রতিকুলতা সত্ত্বেও এবারের মেলায় ভালো সাড়া পাবো’।  তাছাড়া দর্শনার্থীর সংখ্যাও এবার বাড়বে বলে মনে করেন তিনি।

তিনি জানান, ইতোমধ্যে বিদেশি ১৩০টি ও দেশি ১০০ স্টল বরাদ্দ হয়ে গেছে বলে জানান তিনি।

জানা যায়, এবারের মেলায় ৩৫০টি দেশি-বিদেশি স্টল থাকছে। বাংলাদেশ, ভারত, পাকিস্তান, চীন, তাইওয়ান, কোরিয়া, থাইল্যান্ড, ভিয়েতনাম, সংযুক্ত আরব আমিরাত, সিঙ্গাপুর, ইতালি, যুক্তরাজ্য, ইন্দোনেশিয়া, মালয়েশিয়াসহ বিশ্বের বিভিন্ন দেশ মেলায় অংশগ্রহণ করছে। তবে থাইল্যান্ড, যুক্তরাজ্য, ইতালি ও সিঙ্গাপুর প্রথমবারের মতো অংশগ্রহণ করছে বলে জানা গেছে।

প্রতিবারের মতো মেলাকে জমিয়ে তুলতে থাকছে সেমিনার, সিম্পোজিয়াম, সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানসহ নানা আয়োজন।

গত বছরের দুই লাখ দর্শনার্থী মেলায় এসেছিলেন বলে জানা যায়। তবে এবারের মেলায় আরও বেশি দর্শনার্থীর উপস্থিতি থাকবে বলে মনে করছেন সংশ্লিষ্টরা।