মাদারীপুরের নির্বাচনে বিদ্রোহীপ্রার্থী শাহীনকে প্রার্থী ঘোষণা

0
58
madaripur
মাদারীপুরের মানচিত্র

মাদারীপুর১৯ ফেব্রুয়ারি বুধবার অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে মাদারীপুরে কালকিনি উপজেলা পরিষদ নির্বাচন। আওয়ামী লীগের ৩ প্রার্থী চেয়ারম্যান পদে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করলেও শেষ সময়ে উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি অধ্যাপিকা তাহমিনা সিদ্দিকী নির্বাচন থেকে সরে দাঁড়ান এবং উপজেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক বিদ্রোহীপ্রার্থী তৌফিকুজ্জামান শাহীনকে দলীয় সমর্থন দেওয়া হয়।

রবিবার সন্ধ্যায় কালকিনি সৈয়দ আবুল হোসেন কলেজের হলরুমে উপজেলা আওয়ামী লীগের কর্মীসভায় তৌফিকুজ্জামান শাহীনকে আওয়ামী লীগের প্রার্থী ঘোষণা করা হয়।

দলীয় সূত্রে জানা গেছে, কয়েকদিন ধরে আওয়ামী লীগের প্রার্থী নিয়ে ভোটারদের মুখে নানা কথা শোনা যাচ্ছে। এ নিয়ে আওয়ামী লীগ ও স্থানীয় এমপি আ.ফ.ম বাহাউদ্দিন নাছিমসহ দলীয় নেতাদের সাথে কয়েক দফা মিটিং হয়। পরে তাহমিনা সিদ্দিকীর সমর্থন প্রত্যাহার করে শাহীনকে সমর্থন দেওয়া হয়।

সভায় সভাপতিত্ব করেন উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও নির্বাচন থেকে নিজেকে প্রত্যাহার করা ঘোড়া প্রতীকের প্রার্থী অধ্যাপিকা তাহমিনা সিদ্দিকী। প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন কেন্দ্রীয় আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক স্থানীয় এমপি আ.ফ.ম বাহাউদ্দিন নাছিম।

সভায় অন্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন- মাদারীপুর জেলা পরিষদ প্রশাসক মিয়াজউদ্দিন খান, মাদারীপুর জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক কাজল কৃষ্ণ দে, মাদারীপুর পৌরসভার মেয়র খালিদ হোসেন ইয়াদ, কালকিনি উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ও আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মীর গোলাম ফারুক, কেন্দ্রীয় কৃষকলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক সাকিলুর রহমান সোহাগ তালুকদার, কেন্দ্রীয় আওয়ামী লীগ উপ-কমিটির সহ-সম্পাদক মীর মামুনুর রশিদ, পৌর আ.লীগের সভাপতি দেলোয়ার হোসেন দুলাল, সাধারণ সম্পাদক আশ্রাব আলী বেপারী, উপজেলা যুবলীগের সভাপতি মনিরুজ্জামান হাওলাদার, সাধারণ সম্পাদক সরদার নিজামুল হক, উপজেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের সভাপতি মো. ফরিদ সরদার, উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি ওয়াহিদুজ্জামান বুলেট, সাধারণ সম্পাদক রুহুল আমিন মীর সুজন প্রমুখ।

সভায় আওয়ামী লীগ সমর্থিত প্রার্থী তৌফিকুজ্জামান শাহীনকে ভোট দিয়ে জয়যুক্ত করার আহ্বান জানান আ.ফ.ম বাহাউদ্দিন নাছিমসহ দলীয় নেতাকর্মীরা। অপরদিকে ভাইস চেয়ারম্যান পদে বই প্রতিকের জাকির হোসেন মাসুদ ও সংরক্ষিত মহিলা ভাইস চেয়ার পদে কলস প্রতীকের কাজী নাসরিনকে দলীয় সমর্থন দেয় আওয়ামী লীগ।

নির্বাচন থেকে সরে আসার ব্যাপারে অধ্যাপিকা তাহমিনা সিদ্দিকী বলেন, `দলীয় সিদ্ধান্তকে আমি সর্মথন করেছি।’

কেএফ