ঝিনাইদহের নির্বাচনে আ’লীগ-বিএনপির হাড্ডাহাড্ডি লড়াই

0
84
upojela nirbachon

upojela nirbachonঝিনাইদহে জমে উঠেছে উপজেলা নির্বাচন। এবার চেয়ারম্যান, ভাইস চেয়ারম্যান ও মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান পদের ভোট আওয়ামী লীগ ও বিএনপির মধ্যে সীমাবদ্ধ। তাই ভোটাররা বিভক্ত হয়ে গেছে দুই ভাগে।

ঝিনাইদহের সদর উপজেলায় ১৭টি ইউনিয়ন, ১টি পৌরসভা নিয়ে গঠিত। মোট ভোটার ৩০২৫৮৬ জন। এর মধ্যে পুরুষ ১৪৯৮৫৪ জন এবং মহিলা ১৫২৭৩২ জন। সংখ্যা ১৪৬টি। যেহেতু মহিলা ভোটারের সংখ্যা বেশি সেক্ষেত্রে মহিলা ভোটারের ওপর নির্ভর করছে জয় পরাজয়।

এই আসনে বিএনপির প্রার্থী আব্দুল আলিম এর সাথে আওয়ামী লীগের বর্তমান চেয়ারম্যান কনক কান্তি দাস এর প্রতিদ্বন্দ্বিতা হবে। তবে সাধারণ ভোটাররা জানিয়েছেন, যদি নির্বাচন সুষ্ঠ হয় সেক্ষেত্রে বিএনপির প্রার্থী আব্দুল আলিমের বিজয় হবে। এছাড়াও জাতীয় পার্টির প্রার্থী হিসেবে হারুন অর রশিদ নির্বাচন করছেন।

ভাইস চেয়ারম্যান পদে জামাতের হাবিবুর রহমান প্রতিযোগিতা করছেন আওয়ামী লীগের মনোনীত প্রার্থী আতিকুল হাসান মাসুমের সাথে। যদিও আওয়ামী লীগের আরও ৫ বিদ্রোহী প্রার্থী রয়েছে। হাবিবুর ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয় থেকে অর্নাস-মাস্টার্স ও এমফিল করা এবং বর্তমানে পিএইচডি গবেষণারত। তার পশ্চিমাঞ্চালে একটি রিজার্ভ ভোট ব্যাংক আছে। তারপরেও তিনি জামাতের প্রার্থী হওয়ায় নির্বাচনী মাঠে কাজ করতে পারছেন না। পুলিশ তাকে বিভিন্ন মামলা দিয়ে বাড়ি ছাড়া করে রেখেছেন। তবে সাধারণ ভোটাররা তাকে বিজয়ের ব্যাপারে এক ধাপ এগিয়ে রেখেছেন।

মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান পদে বিএনপির প্রার্থী তহুরা খাতুনের সাথে আওয়ামী লীগের বর্তমান মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান শিরিনা রহমানের প্রতিদ্বন্দ্বিতা হবে।

ভোটাররা জানিয়েছে- আ’লীগ, বিএনপি, জামায়াত, জাতীয় পার্টি প্রার্থীরা মনোনয়ণপত্র জমা দিয়েছেন এবং ভোটযুদ্ধে অংশ নিয়েছেন। তবে এই সব দলের প্রার্থীদের মধ্যে আ’লীগ ও বিএনপির প্রার্থীদের মধ্যেই মূলত হাড্ডা হাড্ডি লড়াই হবে।

কেএফ