মেলায় শনিবারের নতুন বই

0
90
book fair

book fair2আজ মেলায় ভালবাসেই ভালবাসা হয় না বইয়ের মোড়ক উন্মোচন করেন ভাষা সৈনিক আবদুল মতিন, পৃথিবীর বিস্ময় কবি সুকান্ত উন্মোচন করেন বেসামরিক বিমান ও পর্যটন মন্ত্রী রাশেদ খান মেনন ও কবি আসাদ চৌধুরী উন্মোচন করেন ‘আমরা আমাদের বিক্রমপর’ ও শিশুসাহিত্যিক আলী ইমাম উন্মোচন করেন উঠল যখন চাঁদ।

এছাড়া আজ মেলায় নতুন বইয়ের মধ্য রয়েছে, রেজাউদ্দিন স্টালিনের ডাকঘর, মেহের নেগারের এইতো সমঢ ঘুরে দাড়াবার, মুহিবুল ইসলামের যদি ভালবাস, শেখ আবদুশের আধুনিক বিজ্ঞান ও ধর্মের পরিধি, ডা. শুভাগত চৌধুরীর ডায়বেটিক: রোগ লক্ষন ও প্রতিকার, আফরোজা পারভীনের মনের গহিনে। ডায়েরী ছেড়া পাতা, ছায়া পড়ে রোদ্দুরে এবং হ্যালো তোমাকেই বলছি।

আজ শনিবার অমর একুশে গ্রন্থমেলার ১৫ দিন। মেলায় আজ নতুন বই এসেছে ১২৬টি এবং ১৭টি বইয়ের মোড়ক উন্মোচন করা হয়।

আজকের বিষয়ভিত্তিক বই :

গল্প-১৯টি, উপন্যাস-১৯টি, প্রবন্ধ-১৫টি, কবিতা-৩৭টি, গবেষণা-২টি, ছড়া-২টি, শিশুতোষ-৩টি, জীবনী-৩টি, রচনাবলী-০টি, মুক্তিযুদ্ধ-২টি, নাটক-৩টি, বিজ্ঞান-২টি, টি, ইতিহাস-১টি,  চিকিৎসা-৩টি, রম্য/ধাঁধা-২টি, ধর্মীয়-১টি, সায়েন্স ফিকশন-২টি এবং অন্যান্য-১০টি। গ্রন্থমেলায় এ পর্যন্ত নতুন বই এসেছে ১৩৮০টি

মেলায় ছিল আজ শিশুপ্রহর। শিশুদের অভিভাবকসহ স্বাচ্ছন্দ্যে বই কেনার সুবিধার্থে সকাল ১০টা থেকে বিকেল ৩টা পর্যন্ত শিশুপ্রহর চলে।

এছাড়া সকাল ১০টায় ছিল অমর একুশে উদযাপন উপলক্ষে শিশু-কিশোরদের সাধারণ জ্ঞান ও উপস্থিত বক্তৃতা প্রতিযোগিতার চূড়ান্ত নির্বাচন। বিকেল ৪টায় গ্রন্থমেলার মূলমঞ্চে অনুষ্ঠিত হয় লালন শাহ্ শীর্ষক আলোচনা অনুষ্ঠান। অনুষ্ঠানে লালন সাঁই-এর দেহতত্ত্ব  শিরোনামের প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন ভারতের বিশিষ্ট লালন গবেষক শক্তিনাথ ঝা। আলোচনায় অংশগ্রহণ করেন শফি আহমেদ, আবদুল ওয়াহাব, অসীমানন্দ গঙ্গোপাধ্যায় এবং রেজাউদ্দিন স্টালিন।

সভাপতিত্ব করেন পশ্চিমবঙ্গের রবীন্দ্রভারতী বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রাক্তন উপাচার্য অধ্যাপক পবিত্র সরকার।

সংগীত সন্ধার অনুষ্ঠান:

সন্ধ্যায় সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানে একক সংগীত পরিবেশন করেন ভারতের প্রখ্যাত কণ্ঠশিল্পী শুভেন্দু মাইতি। এছাড়া সংগীত পরিবেশন করেন ফরিদা পারভীনের পরিচালনায় সাংস্কৃতিক সংগঠন ‘অচিন পাখি’। যন্ত্রাণুষঙ্গে ছিলেন দেবেন্দ্রনাথ চট্টোপাধ্যায় (তবলা), গাজী আবদুল হাকিম (বাঁশি), এস. এম. রেজা বাবু (ঢোল), মোহাম্মদ দেলোয়ার হোসেন (দোতারা), ডালিম কুমার বড়ুয়া (কী-বোর্ড) এবং শাহাদাৎ হোসেন রনি (মন্দিরা)।

সাকি/