জমে উঠছে আইসিটি মেলা

নিজস্ব প্রতিবেদক

0
54
আইসিট এক্সপোতে দর্শর্ণর্থীদের ভীড়।

আজ শুক্রবার, ছুটির দিন। ছুটির দিন থাকায় জমে উঠেছে আইসিটি এক্সপো-২০১৬। সকাল ১০টায় মেলা শুরু হওয়ার কিছু পর থেকেই ক্রেতা-দর্শনার্থীদের ভিড় বাড়তে শুরু করে। মুখরিত হয়ে উঠতে শুরু করে মেলা প্রাঙ্গন। তরুণ দর্শনার্থী ও ক্রেতাদের উচ্ছাস, শিশুদের হৈহুল্লোরে মেতে উঠেছে মেলা।

বৃহস্পতিবার থেকে রাজধানীর বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে শুরু হওয়া এই মেলা চলবে আগামীকাল শনিবার পর্যন্ত।

সরকারের তথ্য প্রযুক্তি বিভাগ এবং বাংলাদেশ কম্পিউটার সমিতি (বিসিএস) যৌথভাবে এই মেলার আয়োজন করেছে।

রামপুরা থেকে মেলায় আসা রফিকুল। প্রযুক্তিতে প্রবল আগ্রহ। কাজ করেন একটা বেসরকারি আইটি ফার্মে। অফিস নাই আজ। তাই মেলায় এসেছেন টুকিটাকি বিষয়ের ধারনা নিতে। নতুন কী কী সেবা বা পণ্য আসছে তার ধারনা পেতে।

মেলায় রয়েছে  ৫৯টি প্যাভেলিয়ন ও ৭০টি ছোট-বড় স্টল। মেলায় লোকাল ম্যানুফ্যাকচারার্স, প্রোডাক্ট শো-কেসিং, ইনোভেশন, মিট উইথ ইন্টারন্যাশনাল ম্যানুফ্যাকচারার্স, ডিজিটাল লাইফস্টাইল, মেগা সেল, বিজনেস টু বিজনেস ম্যাচমেকিং নিয়ে আটটি বিশেষায়িত অঞ্চলে ভাগ করা হয়েছে।

মেলায় শিশুদের নিয়ে ডিজিটাল আর্ট কম্পিটিশনের আয়োজন করা হয়েছে। এছাড়াও মেলায় রয়েছে একটি ইনোভেশন জোন।

তবে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী কামরুল এসেছেন এখানে নিয়মিত যে সেমিনার হচ্ছে তাতে অংশগ্রহণের জন্য। তিনি ভবিষ্যতে আইটি বিশেষজ্ঞ হতে চান।

উল্লেখ, মেলা চলাকালে স্থানীয় পর্যায়ে উৎপাদনের সম্ভাবনা ও চ্যালেঞ্জ, ক্লাউড কম্পিউটিং, শিক্ষায় তথ্যপ্রযুক্তি, ই-স্বাস্থ্যসেবা, ই-গর্ভনেন্স, আইটি এনাবল ও ট্রেড কর্মাসের সম্ভাবনা, তথ্য প্রযুক্তিতে মানবসম্পদের উন্নয়ন, ক্রস বর্ডার সাইবার ক্রাইম, ডিজিটাল নিরাপত্তা, ইন্টারনেট অব থিংস ইত্যাদি বিষয়ে ১৪টি সেমিনার অনুষ্ঠিত হবে। যুক্তরাষ্ট্র, চীন, মালয়েশিয়া, ফিলিপাইন, ভারত, সিঙ্গাপুরসহ ১০টির বেশি দেশের তথ্য প্রযুক্তি বিশেষজ্ঞ, প্রকৌশলী, প্রোগ্রামাররা সেমিনারে প্রবন্ধ পাঠ ও আলোচনায় অংশ নিচ্ছেন।

২০টির বেশি আন্তর্জাতিক ব্র্যান্ডের পাশাপাশি দেশীয় শতাধিক তথ্য প্রযুক্তি প্রতিষ্ঠান, সংগঠন ও ২০টির বেশি মন্ত্রণালয়, বিভাগ ও অধিদপ্তর প্রদর্শনীতে অংশ নিচ্ছে।

উল্লেখ, প্রতিদিন সকাল ১০টা থেকে রাত ৮টা পর্যন্ত মেলা খোলা থাকবে সবার জন্য। মেলায় প্রবেশের জন্য কোনো ফি লাগবে না।

মেলা প্রাঙ্গনে প্রবেশ করেই বিনামূল্যে ব্যবহার করা যাবে উচ্চগতির ইন্টারনেট।

এমএইচ/টি