জাবি থেকে অধ্যাপক আনোয়ারকে অপসারণ
রবিবার, ২০শে সেপ্টেম্বর, ২০২০ খ্রিস্টাব্দ
today-news
brac-epl
প্রচ্ছদ » শিক্ষা

জাবি থেকে অধ্যাপক আনোয়ারকে অপসারণ

jabi_anwar_hossainসরকারের উচ্চপর্যায়ের নির্দেশনায় জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয় থেকে উপাচার্য অধ্যাপক মো. আনোয়ার হোসেনকে অপসারণ করা হয়েছে। বৃহস্পতিবার দুপুর আড়াইটার দিকে পুলিশী পাহারায় নিজ বাস ভবন থেকে তিনি বিদায় নেন। এ সময় তার বিদায়ে আন্দোলনরত শিক্ষক-শিক্ষার্থী-কর্মকর্তা ও কর্মচারী ঐক্য ফোরাম উল্লাশ প্রকাশ করে ক্যাম্পাসে মিষ্টি বিতরণ করেন।

এর আগে শিক্ষক সমিতির সভাপতির বাসায় ককটেল বিস্ফোরনের ঘটনায় মৌণ মিছিল করে শিক্ষক সমিতি। মিছিলটি শহীদ মিনারে এসে শেষ হয়। এসময় শিক্ষকরা সবার মাঝে উপাচার্যের বিদায়ে মিষ্টি বিতরণ করেন।

জানা যায়, বুধবার রাতে সরকারের উচ্চ মহল থেকে উপাচার্যকে ক্যাম্পাস ছেড়ে দেওয়ার নির্দেশনা দেওয়া হয়। সে সময় উপাচার্যকে নিতে ক্যাম্পাসে আসেন ঢাকা জেলার ডিসি, এসপি, এএসপিসহ আশুলিয়া থানার শতাধিক পুলিশ।  তবে রাতে না যাওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়ে জানান বৃহস্পতিবার সকালে তিনি ক্যাম্পাস ছেড়ে চলে যাবেন । আজ দুপুর ১টার দিকে সাভার উপজেলার নির্বাহী অফিসার এসে তার জন্য অপেক্ষা করেন।

এসময় উপাচার্য নিজের প্রয়োজনীয় জিনিসপত্র নিয়ে দুপুর আড়াইটার দিকে তার স্ত্রী ও সহকারী প্রক্টর কাজী সাইফুল ইসলামকে নিয়ে বিদায় নেন।

এ সময় তিনি হাত নেড়ে জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয় পরিবারকে বিদায় জানান। তখন ছাত্রলীগের সভাপতি গ্রুপের নেতাকর্মীরা উপাচার্যের পক্ষে মিছিল করেন।

উপাচার্য বিদায় নিলে আন্দোলনরত শিক্ষকরা উপাচার্যের বাসভবন থেকে অবস্থান কর্মসূচি প্রত্যাহার করেন। তবে প্রশাসনিক ভবন অবরোধ কর্মসূচি চলতে থাকবে বলে তারা জানান।

ফোরামের সদস্য সচিব অধ্যাপক কামরুল আহসান বলেন, অফিসিয়াল ভাবে যতক্ষন পর্যন্ত কেউ উপাচার্যের দায়িত্ব না নিচ্ছেন ততক্ষণ পর্যন্ত আমাদের প্রশাসনিক ভবন অবরোধ কর্মসূচি চলতে থাকবে।

এর আগে উপাচার্য ক্যাম্পাস থেকে বিদায় নেওযার সময় পাঁচ দিনের জন্য ভারপ্রাপ্ত উপাচার্যের দায়িত্ব দেন উপ-উপাচার্য (প্রশাসন) অধ্যাপক আফসার আহমদকে।

এদিকে উপাচার্য ক্যাম্পাস থেকে বিদায় নেওয়ার সময় নবনির্মমিত শেখ হাসিনা হলের ফলক পরিদর্শন করেন।

এ সময় তিনি সাংবাদিকদের উদ্যেশে বলেন, জাহাঙ্গীরনগরে আরও অনেক কাজ হবে। তবে আমি সব কাজ দেখে যেতে পারলাম না।

উপাচার্য পদতাগ না করলেও ধারণা করা হচ্ছে সরকার তাকে সরিয়ে নিয়েছে। তবে আনুষ্ঠানিক ভাবে এখনো  কোনো ঘোষণা আসেনি।

গত বছর আন্দোলনের মুখে অধ্যাপক শরীফ এনামুল কবির পদত্যাগ করলে ২০মে দায়িত্ব গ্রহণ করেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক সমিতির সভাপতি অধ্যাপক আনোয়ার হোসেন। বিভিন্ন বিতর্কিত কর্মকাণ্ডে শিক্ষকরা তার বিরুদ্ধে আন্দোলন শুরু করলে অবশেষে তিনি বিদায় নিতে বাধ্য হন।

 

এই বিভাগের আরো সংবাদ