পাঁচ সপ্তাহ পর ডিএসইতে কমেছে সূচক ও লেনদেন

0
27
dse
ডিএসই লোগো

dseঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জে (ডিএসই) টানা পাঁচ সপ্তাহ পরে লেনদেন ও সূচক কমেছে। গত সপ্তাহে ডিএসইতে সূচক কমেছে প্রায় ৮৬ পয়েন্ট।এদিকে সপ্তাহের ব্যবধানে লেনদেনও কমেছে উল্লেখযোগ্য হারে।

ডিএসইর গত পাঁচ সপ্তাহের হিসাব বিশ্লেষণ করে দেখা গেছে ওই সময়টিতে পুঁজিবাজার উর্ধমুখী ধারায় ছিল। সেই সময়ে বেড়েছে ব্যাংক, বিমা,আর্থিক প্রতিষ্ঠানসহ ভালো মৌলের শেয়ার দর।

কিন্তু সদ্য সমাপ্ত সপ্তাহে এ খাতের বিনিয়োগকারীরা মুনাফা তুলে নেওয়ায় দর হারাচ্ছে কোম্পানিগুলোর শেয়ার।

বিশ্লেষকদের মতে, সামনে ব্যাংক ও আর্থিক খাতের লভ্যাংশ ঘোষণার সময় ঘনিয়ে আসছে। বিগত সময়ে এ খাতে ভালো ব্যবসা হয় নি। তাই অনেকেই ঝুঁকি না নিয়ে হাতে থাকা শেয়ার বিক্রি করে দিচ্ছেন। এতে সার্বিক বাজারের সূচক ও লেনদেনের উপর প্রভাব পড়েছে।

বাজার বিশ্লেষণে দেখা যায়, গত সপ্তাহে ডিএসইতে লেনদেন হয়েছে ২ হাজার ৮৯৫ কোটি টাকার। যা আগের সপ্তাহে ছিল  ৩ হাজার ৬৬৪ কোটি টাকার। অর্থাৎ সপ্তাহের ব্যবধানে ডিএসইতে লেনদেন কমেছে ৭৬৮ কোটি টাকা বা ২০.৯৮ শতাংশ।

সপ্তাহের ব্যবধানে ডিএসইতে এক্স সূচকও কমেছে। এ সময়ে সূচক কমেছে ৮৫ দশমিক ৭৬ পয়েন্ট বা ১ দশমিক ৭৭ পয়েন্ট। যা আগের সপ্তাহে ছিল ৯১ দশমিক ৯২ পয়েন্ট বা ১ দশমিক ৯৩ পয়েন্ট।

গত সপ্তাহের প্রথম কর্মদিবসে ৪ হাজার ৮৪৫ পয়েন্ট দিয়ে শুরু হলেও সপ্তাহের শেষ কর্মদিবসে ডিএসই এক্স সূচক নেমে  যায় ৪ হাজার ৭৫৯ পয়েন্টে।

তবে গত সপ্তাহে বাজারে বহুজাতিক ও বিদ্যুৎ কোম্পানিগুলোর লেনদেন ও শেয়ার দর বেড়েছে। এর  প্রভাব পড়েছে ডিএসই ৩০ সূচকে। সপ্তাহের ব্যবধানে ডিএসই ৩০ সূচক বেড়েছে ১৪ দশমিক ৭৫ পয়েন্ট বা ০.৮৮ শতাংশ।

ডিএসই শরীয়াহ সূচক  কমেছে সামান্য। সপ্তাহের ব্যবধানে এ সূচক কমেছে দশমিক ৬১ পয়েন্ট বা ৬ শতাংশ।

এসএ/