সরকার উৎখাতে নেমে খালেদা বিরোধীদলের পদ হারালেন: হাছান মাহমুদ

0
22
hasan-mahmud

hasan-mahmudখালেদা জিয়া সরকাকে উৎখাত করতে গিয়ে রাজনীতিতে বিরোধীদলের নেতার পদটি হারিয়েছেন বলে মন্তব্য করলেন আওয়ামী লীগের প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক ড. হাছান মাহমুদ।

বুধবার জাতীয় প্রেসক্লাবে ঠিকানা বাংলাদেশ আয়োজিত ‘কাজী ফিরোজ রশীদের সংবর্ধনা’ অনুষ্ঠানে প্রধান অথিতির বক্তব্যে তিনি একথা বলেন।

হাছান মাহমুদ বলেন, খালেদা জিয়া যাদের পরামর্শে বিরোধীদলের নেতার পদটি হারিয়েছেন আবার তাদেরই পরামর্শে এখন দলের নেতাদের উৎখাত করতে গিয়ে নিজের দলের পদটিও হারান সেটা আমরা চাই না।

সরকারকে উৎখাত না করে রাজপথ ছাড়বে না সম্প্রতি বিএনপির যুগ্ম-মহাসচিব রুহুল কবির রিজভীর এমন বক্তব্যে তিনি বলেন, অতীতেও বিএনপি একই কথা বলেছিল। তারা  সরকারকে উৎখাত করতে গিয়ে নিজেরাই রাজনীতি থেকে উৎখাত হয়ে গেছেন।

তিনি আরও বলেন, অতীতে কখনও বিরোধীদল ও সরকার একসাথে বসে কোনো বাক-বিতন্ডা ছাড়া অনুষ্ঠান করতে পারেনি। একটি সভ্যদেশের রাজনীতি এমনই হওয়া উচিত।

গত এক বছরে যত হত্যা ও গুমের ঘটনা ঘটেছে তার সাথে বিএনপি জড়িত এমন অভিযোগ তুলে সাবেক এই মন্ত্রী বলেন, একজন মন্ত্রী কখনো শতভাগ ভালো কাজ করতে পারে না। সংসদে সরকারের মন্ত্রীদের এসব কাজের সমালোচনা করার ঘোষণা দেওয়ায় তিনি বিরোধীদলের নেতা রওশন এরশাদকে ধন্যবাদ জানান।

একই অনুষ্ঠানে কাজী ফিরোজ রশিদ বলেন, আমরা ৭১ সালে বঙ্গবন্ধুর নেতৃত্বে যুদ্ধ করেছিলাম। মুক্তিযুদ্ধে দুইটি সফল বাহিনী ছিল। একটি কাদেরীয়া বাহিনী অন্যটি হেমায়েত বাহিনী।

এ সময় ৫ই জানুয়ারি নির্বাচনের ভোট যুদ্ধে খালেদার হুমকি, হত্যা ও বোমাবাজির কাছে যদি শেখ হাসিনা পরাজিত হত তাহলে দেশ পাকিস্তানের কাছে আবার চলে যেত বলে মন্তব্য করেন তিনি।

খালেদা জিয়াকে উদ্দেশ্য করে ফিরোজ বলেন, আগামি পাঁচ বছর পর কি শর্ত মানলে নির্বাচনে আসবেন তা আগে ঠিক করুন। পাঁচ বছরের একদিন আগেও নির্বাচন হবে না বলেও জানান তিনি।

অনুষ্ঠানে হাজি সেলিমের সভাপতিত্বে আরও উপস্থিত ছিলেন বীরমুক্তিযোদ্ধা হেমায়েত উদ্দিন বীর বিক্রম, আসাদুজ্জামান দুর্জয়, সৈয়দা রাজিয়া মুস্তফা, হারুন চৌধুরী প্রমুখ।

জেইউ/