বিদ্যুৎখাত উন্নয়নে আড়াই হাজার কোটি টাকা দেবে এডিবি

0
96

adpবিদ্যুৎ খাত উন্নয়নে ঋণ সহায়তা হিসেবে বাংলাদেশ সরকারকে ২ হাজার ৪৮০ কোটি টাকা ঋণ সহায়তা দেবে এশীয় উন্নয়ন ব্যাংক (এডিবি)। পাওয়ার সিস্টেম এক্সপানসন এন্ড ইফিসিয়েন্সি ইমপ্রুভমেন্ট প্র্রোগ্রমের দ্বিতীয় অংশ বাস্তবায়নে ব্যাংকটি এ অর্থ দেবে।

মঙ্গলবার রাজধানীর আগারগাঁও এডিবির কার্যালয়ে এ সংক্রান্ত একটি চুক্তি স্বাক্ষরিত হয়। সরকারের পক্ষে অর্থনৈতিক সম্পর্ক বিভাগের যুগ্ম সচিব সাইফুদ্দিন আহমেদ এবং এডিবির পক্ষে আবাসিক মিশনের অফিসার  ইনচার্জ স্টিফেন এ্যাকল্যান্ড নিজ নিজ পক্ষে চুক্তিতে স্বাক্ষর করেন।

এ সময় সাইফুদ্দিন আহমেদ বলেন, বিদ্যুৎ খাতে এটি এডিবির  সবচেয়ে বড় সহায়তা। প্রথম ট্রান্সে বিদ্যুৎ উৎপাদন ও বিতরণ ব্যবস্থা যুক্ত ছিল। দ্বিতীয় ট্রান্সে সঞ্চালন এবং তৃতীয় ট্রান্সে বিদ্যুৎ উৎপাদন, সঞ্চালন ও বিতরণ দক্ষতার উন্নয়ন করা হবে।

স্টিফেন এ্যাকল্যান্ড বলেন, বিদ্যুৎ খাত উন্নয়নে মাল্টি ডোনারের মাধ্যমে  ১দশমিক ৬ বিলিয়ন ডলার বিনিয়োগ করা হচ্ছে।

এছাড়া চুক্তিতে স্বাক্ষর করেন ঢাকা পাওয়ার ডিস্ট্রিবিউশন কোম্পানির ব্যবস্থাপনা পরিচালক ব্রিগেডিয়ার জেলারেল (অব.) নজরুল হাসান, পাওয়ার গ্রিড কোম্পানির প্রধান প্রকৌশলী কাজী আহসান শফিক এবং ডেসকোর পক্ষে কোম্পানি সচিব শফিকুল ইসলাম।

এডিবি জানায়, এশীয় উন্নয়ন ব্যাংক(এডিবি) ছাড়াও বিদ্যুৎ খাতে বড় বিনিয়োগ করেছে আরও তিনটি সংস্থা। এগুলো হল- ইসলামিক উন্নয়ন ব্যাংক (আইডিবি), ইউরোপীয় ইনভেস্টমেন্ট ব্যাংক (ইআইবি) এবং ফ্রান্স উন্নয়ন সংস্থা (এএফডি)। এ ৪ সংস্থা মিলে মোট বিনিয়োগ করছে ১ দশমিক ৬ বিলিয়ন মার্কিন ডলার। বিদ্যুৎ খাতে অর্থায়নের নতুন পদ্ধতি মাল্টিট্রান্স ফাইনান্সিং ফ্যাসিলিটির (এমএমএফ) আওতায় এ পরিমাণ বিনিয়োগ করতে গঠিত হয়েছে এডিবির নেতৃত্বে এই জোট।

এ বিষয়ে অর্থনৈতিক সম্পর্ক বিভাগের যুগ্ম সচিব সাইফুদ্দিন আহমেদ জানান, এ অংশে প্রায় সাড়ে ৮ হাজার কোটি টাকা ব্যয় হবে। এর মধ্যে এডিবি দিচ্ছে প্রায় ২ হাজার ৪৮০ কোটি, আইডিবি দিচ্ছে ১ হাজার ৭৬০ কোটি, ফ্রান্সের এএফডি দিচ্ছে প্রায় ১ হাজার কোটি টাকা এবং বাকি টাকা প্রকল্প বাস্তবায়নকারী সংস্থা ও সরকারের নিজস্ব তহবিল থেকে ব্যয় করা হবে।

এডিবির ঋণ পাঁচ বছর গ্রেস পিরিয়ডসহ ২৫ বছরের মধ্যে পরিশোধ করতে হবে। সুদের হার লাইবরভিত্তিক (লন্ডন ইন্টার ব্যাংকভিত্তিক)। এ ঋণের কমিটমেন্ট ফি দশমিক ১৫ শতাংশ ও প্রিমিয়াম দশমিক ১০ শতাংশ।

সংস্থাটির শর্ত হিসাবে বলা হয়েছে, এডিবির অর্থ ব্যয়ে পূর্তকাজ, মালামাল ও সেবাদি সংগ্রহের ক্ষেত্রে নির্দিষ্ট নীতিমালা অনুসরণ করতে হবে।

বাংলাদেশের বিদ্যুৎ খাতের উন্নয়নে এশীয় উন্নয়ন ব্যাংক (এডিবি) মাল্টিট্রান্স ফাইনান্সিং ফ্যাসিলিটির (এমএমএফ) আওতায় ১ দশমিক ৬ বিলিয়ন মার্কিন ডলারের পাওয়ার সিস্টেম এক্সপানসন এন্ড ইফিসিয়েন্সি ইমপ্রুভমেন্ট প্র্রোগ্রাম নামের একটি কর্মসূচি প্রণয়ন করে। এ কর্মসূচির আওতায় এডিবি ৩ কিস্তিতে মোট ৭০ কোটি মার্কিন ডলার বিনিয়োগ করবে। তিনটি সহযোগী সংস্থা দেবে ৬৭ কোটি ৮০ লাখ মার্কিন ডলার এবং বাংলাদেশ সরকার বাকি ২২ কোটি ২০ লাখ মার্কিন ডলার অর্থায়ন করবে। ইতোমধ্যেই ২০১৩ সালের ৩ এপ্রিল এ কর্মসূচির আওতায় ১৮ কোটি ৫০ লাখ মার্কিন ডলারের পাওয়ার সিস্টেম এক্সপানশন এন্ড ইফিসিয়েন্সি ইমপ্রুভমেন্ট ইনভেসমেন্ট প্রোগ্রাম ফেইজ-১ ঋণ চুক্তি হয়েছিল।

এইচকেবি/