তারেককে যুক্তরাষ্ট্রে প্রবেশ করতে না দিতে দূতাবাসের নির্দেশ

0
52
tarek

tarekসম্প্রতি উইকিলিকসের ফাঁস করা এক তারবার্তায় জানা গেছে, ২০০৮ সালের ৩ নভেম্বর ঢাকা যুক্তরাষ্ট্রের দূতাবাস থেকে দেশটির পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে এক গোপন বার্তা পাঠানো হয়। বার্তায় বিএনপির সিনিয়র ভাইস চেয়ারম্যান তারেক জিয়াকে যুক্তরাষ্ট্রে প্রবেশ করতে না দেওয়ার নির্দেশ দেওয়া হয়।

প্রজ্ঞাপনে বলা হয়, ২০০৮ এর সেপ্টেম্বর মাসে তারেক রহমান চিকিৎসার জন্য যুক্তরাজ্যের ভিসা পেয়েছেন। তার কাছে একাধিক পাসপোর্ট থাকতে পারে তাই সতর্ক থাকার নির্দেশ দেওয়া হচ্ছে।

প্রজ্ঞাপনে বাংলাদেশের তৎকালীন সার্বিক পরিস্থিতি তুলে ধরা হয়েছিল যেখানে দুর্নীতি প্রাধান্য পায়। ২০০৬ সালে বাংলাদেশ চতুর্থবারের মত দুর্নীতিতে সারাবিশ্বে প্রথম স্থান দখল করে এ তথ্য উল্লেখ করে তত্ত্বাবধায়ক সরকারের দুর্নীতি বিরোধী তড়িৎ পদক্ষেপ এবং সতর্ক অবস্থানের কথাও জানানো হয়।

প্রজ্ঞাপনটির চতুর্থ ধারায় তারেক জিয়া সম্পর্কে উল্লেখ করা হয়, তিনি গুরুতর রাজনৈতিক দুর্নীতির সঙ্গে সম্পৃক্ত। যা যুক্তরাষ্ট্রের পররাষ্ট্র নীতি বিষয়ক লক্ষ্যমাত্রাকে ক্ষতিগ্রস্ত করতে পারে। তবে তারেক জিয়ার স্ত্রী ড. জুবায়দা, কন্যা জাইমা ও মা বিএনপির চেয়ার পারসন বেগম খালেদা জিয়া সম্পর্কে যুক্তরাষ্ট্রে প্রবেশে কোনো নিষেধাজ্ঞা নেই বলে উল্লেখ করা হয় প্রজ্ঞাপনে।

এমআর