আমদানি বিকল্প পণ্য উৎপাদন করছে এএফসি এগ্রো

0
183

highlights of afc agro biotechআজ মঙ্গলবার পুঁজিবাজারে তালিকাভুক্ত হচ্ছে রাসায়নিক ও ওষুধের কাঁচামাল প্রস্তুতকারী কোম্পানি এএফসি এগ্রো বায়োটেক। সকাল সাড়ে ১০ টায় দেশের দুই স্টক এক্সচেঞ্জে একযোগে এ কোম্পানির শেয়ার লেনদেন শুরু হবে।

কোম্পানির প্রসপেক্টাস থেকে জানা যায়, এটি আমদানি বিকল্প বিভিন্ন রাসায়নিক উৎপাদন করে থাকে। এর মধ্যে রয়েছে মাইক্রোলাইড প্রোটিন, এল-লাইসিন, মনো সোডিয়াম গ্লোকোমেট, এসিটিক এসিড এবং ম্যাথরিয়ন। এসব পণ্য ওষুধ প্রস্তুতকারী কোম্পানি, পোল্ট্রি ফিড প্রস্তুতকারক, পশু ও মৎস্য খাদ্য প্রস্তুতকারক, টেক্সটাইল ও বিভিন্ন খাদ্য প্রস্তুতকারক কোম্পানির কাছে বিক্রি করে থাকে।

প্রসপেক্টাসে কোম্পানি দাবি করেছে, দেশে এসব পণ্য উৎপাদনের একমাত্র কোম্পানি এএফসি এগ্রোবায়োটেক। কোনো প্রতিদ্বন্দ্বী না থাকায় একচেটিয়া ব্যবসা করছে তারা। এসব পণ্যের স্থানীয় বাজার বেশ বড়। দেশের বাজারের চাহিদা মেটানোর পর আন্তর্জাতিক বাজারেও এসব পণ্য রপ্তানি করা হবে।

তবে কোম্পানির দাবির সঙ্গে বাস্তবতার বেশ পার্থক্য রয়ে গেছে। বিশাল চাহদা সত্ত্বেও কোম্পানিটি তার উৎপাদন ক্ষমতার মাত্র ২৫ ভাগ ব্যবহার করতে পারছে। কোনো কোনো পণ্য উৎপাদন ক্ষমতা ব্যবহারের হার ১০ শতাংশেরও কম। যে কোম্পানি উৎপাদন ক্ষমতার ৫০ ভাগও ব্যবহার করতে পারছে না, সেটি বাজার থেকে সংগৃহীত পুঁজি কতটুকু কার্যকরভাবে ব্যবহার করতে পারবে তা নিয়ে বিনিয়োগকারীদের মধ্যে উদ্বেগ রয়েছে।

কোম্পানিটির  পরিশোধিত মূলধন ৫০ কোটি টাকা। আ্ইপিও’র আগে মূলধন ছিল ৩৮ কোটি টাকা। আইপিও’র মাধ্যমে বাজারে ১ কোটি ২০ লাখ শেয়ার ছেড়ে ১২ কওটি টাকা সংগ্রহ করা হয়। গত বছরের প্রথম ছয় মাসে এর নিট মুনাফা ছিল ৩ কোটি ৯০ লাখ টাকা। এ সময়ে ইপিএস ছিল ৭৭ পয়সা।

এএফসি এগ্রো বায়োটেক পুঁজিবাজারে তালিকাভুক্ত এক্টিভ ফাইন ক্যামিকেলের সহযোগী প্রতিষ্ঠান। এ কোম্পানির প্রায় ১৫ ভাগ শেয়ারের মালিক এক্টিভ ফাইন ক্যামিকেল।