ফ্যাসিবাদী সরকারকে বিতাড়িত করতে হবে: রুহুল আমীন

0
38

ফ্যাসিবাদী সরকারকে বিতাড়িত করে গণতন্ত্র প্রতিষ্ঠার আন্দোলন সফল করার মাধ্যমে সাংবাদিকরা ঘরে  ফিরবে বলে মন্তব্য করেছেন বাংলাদেশ ফেডারেল সাংবাদিক ইউনিয়নের একাংশের সভাপতি রুহুল আমীন গাজী।

বৃহস্পতিবার দুপুরে জাতীয় প্রেসক্লাব চত্বরে বাংলাদেশ ফেডারেল সাংবাদিক ইউনিয়ন ও ঢাকা সাংবাদিক ইউনিয়নের উদ্যোগে সাংবাদিকদের স্বৈরাচার প্রতিরোধ দিবস পালন উপলক্ষে বিক্ষোভ সমাবেশে তিনি এ মন্তব্য করেন।

রুহুল আামীন গাজী বলেন, দেশের ১৬ কোটি মানুষের সাথে একত্ব হয়ে আমরা আন্দোলন চালিয়ে যাব। নির্দলীয় নিরপেক্ষ তত্ত্বাবধায়ক সরকারের অধীনে নির্বাচন না দেওয়া পর্যন্ত আন্দোলন চলবে। দাবি অনুযায়ী বন্ধ গণমাধ্যম খুলে দিতে হবে,মাহমুদুর রহমানকে মু্ক্তি দিতে হবে, সাগর-রুনি হত্যাকারীদের গ্রেপ্তার করতে হবে।

তিনি অভিযোগ করে বলেন, হিন্দুদের ঘরে আগুন দেয়ার  পুরস্কার হিসেবে স্বরাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী শামসুল হক টুকুর মন্ত্রীত্ব বহাল রাখা হয়েছে।

ড. মিলন হত্যাকারী স্বৈরাচারী এরশাদের জাতীয় পার্টির রওশন এরশাদকে স্বাস্থ্যমন্ত্রী মনোনয়ন দেয়ায় তিনি শেখ হাসিনাকে ধিক্কার জানান।

হাসানুল হক ইনুকে প্রশ্ন করে তিনি বলেন, আপনার কি ক্ষমতা আছে বেগম খালেদাকে রাজনীতি থেকে বিদায় করার? আপনি নিজেই তো একটি পরগাছা।

তিনি বলেন, বাম দল, ইসলামী দল ও গণফোরাম সহ কোন দলই নির্বাচনে যাবে না। এখন শুধু এরশাদ হাসিনায় নির্বাচনে যাচ্ছে।  স্বৈরাচার আর ফ্যাসিষ্ট আজ এক হয়েছে।

১৯৯০ সালের ২৭ নভেম্বর স্বৈরাচারি এরশাদ ড. মিলনকে হত্যা করার পর আমরা ঘোষণা করেছিলাম  দেশে কোনও সংবাদপত্র বের করা হবেনা। ৫ তারিখ এরশাদের পতনের পর ৬ তারিখ থেকে নিয়মিতভাবে পত্রিকা বের হয়। সাংবাদিকরা তাদের কথা রেখেছে।

সমাবেশ শেষে একটি বিক্ষোভ মিছিল অনুষ্ঠিত হয়।

বিক্ষোভ সমাবেশে আরো উপস্থিত ছিলেন- বিএফইউজের মহাসচিব শওকত মাহমুদ, সহ-সভাপতি আমিনুল ইসলাম কাগুজী, ডিইউজের সভাপতি আব্দুল হাই শিকদার, সাধারন সম্পাদক জাহাঙ্গীর আলম প্রধান, বাকের হোসাইন প্রমূখ।

জেইউ