Allotment Letter কি

0
66

22222Allotment Letter হচ্ছে বরাদ্দপত্র।পুঁজিবাজারে শেয়ার, মিউচুয়াল ফান্ডের ইউনিট, বন্ডসহ বিভিন্ন সিকিউরিটিজ বরাদ্দের বিষয়টি যে পত্র বা চিঠির মাধ্যমে জানানো হয়।

কোন কোম্পানি প্রাথমিক গণ প্রস্তাবের (আইপিও) মাধ্যমে শেয়ার ইস্যু করলে এসব শেয়ারের জন্য বিনিয়োগকারীদের কাছ থেকে আবেদনপত্র আহ্বান করা হয়। একটি নির্দিষ্ট সময়ের মধ্যে আবেদনকারীর নামে শেয়ার বরাদ্দ করা হয়। তবে ইস্যুযোগ্য শেয়ারের তুলনায় বেশী আবেদনপত্র জমা পড়লে লটারীর মাধ্যমে শেয়ার বরাদ্দ  চূড়ান্ত হয়। আবেদনকারী বরাদ্দ পেলে তাকে চিঠি বা পত্রের মাধ্যমে তা নিশ্চিত করা হয়। এ চিঠিতে আবেদনকারীর নাম, ঠিকানা, বিও হিসাব নাম্বার ইত্যাদি উল্লেখ করা হয়। একেই অ্যালটমেন্ট লেটার বলে।

সাধারণত লটারী অনুষ্ঠানের ৩ থেকে ৫ দিনের মধ্যে অ্যালটমেন্ট লেটার প্রদান শুরু হয়। প্রথম কয়েকদিন কোম্পানি নির্ধারিত জায়গা থেকে হাতে হাতে অ্যালটমেন্ট লেটার নেয়ার সুযোগ থাকে। আইপিওর আবেদনপত্র ও টাকা ব্যাংকে জমা দেয়ার পর আবেদনপত্রের যে অংশটুকুুতে ক্রমিক নাম্বার এবং ব্যাংক সিলমোহর বসিয়ে আবেদনকারীকে ফেরত দেয়া হয়, সেই একনলেজমেন্ট স্লিপ জমা দিয়ে অ্যালটমেন্ট লেটার তুলতে হয়। অন্যান্য প্রক্রিয়া সমাপ্ত করার পর অ্যালটমেন্ট লেটার প্রদানের জায়গা এবং সময়সূচী জানিয়ে কোম্পানির পক্ষ থেকে একাধিক পত্রিকায় বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করা হয়। নির্ধারিত সময়ের পরে কোম্পানি অবশিষ্ট অ্যালটমেন্ট লেটারগুলো সংশ্লিষ্ট ব্যাক্তিদের ঠিকানায় ডাকযোগে পাঠিয়ে দেয়।

সেন্ট্রাল ডিপজিটরি সিস্টেম (সিডিএস) চালুর পর থেকে অ্যালটমেন্ট লেটারের গুরুত্ব আগের চেয়ে অনেক কমে গেছে। কারণ আইপিও শেয়ার বরাদ্দের কয়েক দিনের মধ্যেই সংশ্লিষ্ট বিনিয়োগকারীর বেনিফিশারি ওনার হিসাবে (বিও হিসাব) উক্ত শেয়ার জমা হয়ে যায়। এ ক্ষেত্রে বিনিয়োগকারী যদি অ্যালটমেন্ট লেটার হাতে না-ও পান সে ক্ষেত্রেও আলোচিত শেয়ার বুঝে পেতে কোন সমস্যা হয় না।