রাজশাহী বোর্ডে এসএসসি পরীক্ষার্থী ১ লাখ ২২ হাজার ৯৯০ জন

0
38
রাজশাহী শিক্ষা বোর্ড

রাজশাহী শিক্ষা বোর্ডআগামিকাল রোববার থেকে শুরু হচ্ছে মাধ্যমিক স্কুল সার্টিফিকেট (এসএসসি)। এবারের এসএসসি পরীক্ষায় রাজশাহী বোর্ডে অংশ নেবে ১ লাখ ২২ হাজার ৯৯০ পরীক্ষার্থী।

ইতোমধ্যে পরীক্ষার সকল প্রস্তুতি ইতোমধ্যে শেষ করেছে বলে জানিয়েছেন রাজশাহী শিক্ষা বোর্ডের দায়িত্বপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান ও বর্তমান সচিব প্রফেসর আব্দুর রউফ মিয়া ।

এবার রাজশাহী বোর্ডে ১৯৬ টি কেন্দ্রে পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে। পরীক্ষা শুরু হবে সকাল ১০টা থেকে।

এ বছর বোর্ডের ৮ জেলায় পরীক্ষার্থী রয়েছে ১ লাখ ২২ হাজার ৯৯০ জন। এর মধ্যে ছাত্র ৬৩ হাজার ৮১০ জন ছাত্র এবং ছাত্রী রয়েছে ৫৯ হাজার ১৮০ জন। নিয়মিত পরীক্ষার্থীর সংখ্যা ১ লাখ ১৫ হাজার ৫০০ জন। আর অনিয়মিত পরীক্ষার্থীর সংখ্যা ৭ হাজার ২৮০ জন এবং জিপিএ উন্নয়ন পরীক্ষার্থীর সংখ্যা ২১০ জন। এছাড়াও অন্ধ প্রতিবন্ধীর পরীক্ষার্থী রয়েছে ৭ জন ও শারীরিক প্রতিবন্ধী রয়েছে ১ জন।

নকল মুক্ত পরিবেশে এবং সুষ্ঠুভাবে পরীক্ষা সম্পন্ন করার লক্ষে ১২২টি ভিজিলেন্স টিম এবং ৬টি ঝটিকা টিম গঠন করেছে  শিক্ষা বোর্ড কর্তৃপক্ষ।

প্রফেসর আব্দুর রউফ মিয়া জানান, বোর্ডের অধীনে এবার ২ হাজার ৫৭৪টি প্রতিষ্ঠানের ছাত্র-ছাত্রী ১৯৬টি কেন্দ্রে পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করছে। গত বছর ২ হাজার ৪৭৭টি প্রতিষ্ঠানের পরীক্ষার্থীদের জন্য ১৮৯টি পরীক্ষা কেন্দ্রের ব্যবস্থা ছিল।

চলতি বছরে বিজ্ঞান শাখায় ৪৪ হাজার ২৪৭ জন পরীক্ষার্থীর মধ্যে নিয়মিত ৪২ হাজার ৬৩৯ জন এবং অনিয়মিত ১ হাজার ৬০৮ জন। মানবিক শাখায় ৬২ হাজার ২৩৩ জন পরীক্ষার্থীর মধ্যে নিয়মিত ৫৭ হাজার ৪০৪ জন ও অনিয়মিত ৪ হাজার ৮৯১ জন। ব্যবসায়ী শিক্ষা শাখায় ১৬ হাজার ৫২০ পরীক্ষার্থীর মধ্যে নিয়মিত ১৫ হাজার ৪৫৭ ছাত্র ও অনিয়মিত ১ হাজার ৬৩ জন পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করছে।

 

এবারের পরীক্ষায় সকল বিষয়ে ১ লাখ ১৭ হাজার ৬৭৩জন পরীক্ষার্থী অংশ নিচ্ছে। এছাড়া এক বিষয়ে ৪ হাজার ৫৭০ জন,  দুই বিষয়ে ৬০৬ জন, তিন বিষয়ে ১০৬জন, চার বিষয়ে ৩৫ জন পরীক্ষার্থী অংশ নিচ্ছে। এবারের পরীক্ষায় প্রতিবন্ধী পরীক্ষার্থী রয়েছে ৮ জন। এদের মধ্যে জয়পুরহাট জেলায় ৩ জন, পাবনায় ২ জন, রাজশাহী, নাটোর ও সিরাজগঞ্জে একজন করে।

 

প্রফেসর আব্দুর রউফ মিয়া আরো জানান, পরীক্ষা গ্রহণের মান শতভাগ নিশ্চিতের লক্ষ্যে প্রতিটি কেন্দ্রে আইন-শৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্য মোতায়েনসহ বোর্ডের নিজস্ব ভিজিলেন্স ও মোবাইল টিম গঠন করা হয়েছে। প্রতিবারের মত এবার বোর্ডে প্রথম শ্রেণীর কর্মকর্তা নিয়ে গঠন করা হয়েছে ৬টি ঝটিকা টিম। এরই মধ্যে পরীক্ষা কেন্দ্রের প্রধানদের কাছে পরীক্ষা সরঞ্জাম পৌঁছে দেয়া হয়েছে। সুষ্ঠভাবে পরীক্ষা সম্পন্যের জন্য সকলের সহযোগিতা কামনা করেন তিনি।