প্রায় ১০ লাখ বছর আগের প্রাচীন মানুষের পায়ের চিহ্ন আবিষ্কার

0
67
footprint

footprintপ্রায় ৮ থেকে ১০ লাখ বছর আগের মানুষের পায়ের চিহ্ন খুঁজে পেয়েছেন বিজ্ঞানীরা। তারা বলছেন, আফ্রিকার বাইরে যুক্তরাজ্যে এতো বেশি বছর আগের মানুষের পায়ের চিহ্ন আবিষ্কার এই প্রথম। খবর ডেইলি মেইলের।

কয়েকমাস আগে যুক্তরাজ্যের নরফকের হাপিসবার্গ এলাকায় নদীর চরে কাদাপাথরের ওপর সারি সারি পায়ের ছাপ দেখতে পায় গবেষকরা। এরপর গবেষণা শুরু করেন ব্রিটিশ মিউজিয়াম, ন্যাশনাল হিস্ট্রি মিউজিয়াম এবং লন্ডনের কুইন মেরি বিশ্ববিদ্যালয়ের একদল গবেষক। এতোদিন ধরে ফলাফলের অপেক্ষায় ছিলেন তারা। শুক্রবার এ আবিষ্কারের কথা জানায় গবেষকরা।

বিজ্ঞানীরা মনে করেন, উত্তর ইউরোপীয় অঞ্চলে ১০ লাখ বছর আগেও যে মানুষের অস্তিত্ব ছিল সে সম্পর্কে নিশ্চিত হয়েছেন তারা। প্রত্মতাত্ত্বিকরা বলছেন, ওই সময়ে মানুষ গোষ্ঠীবদ্ধভাবে জীবন যাপন করতো।

প্রতিবেদনে বলা হয়,  পায়ের ছাপগুলির বয়স প্রায় ৮ লাখ থেকে ১০ লাখ বছরের। গবেষকদের ধারণা, ওই সময় একটি পরিবার নদীর পার ধরে যাওয়ার সময় ওই ছাপ রেখে যায়। ইউরোপে এত পুরনো পায়ের ছাপের দেখা মিলেছে এই প্রথম বলে জানান তারা।

গবেষকদের দাবি, ছোট-বড় সকলেরই উপস্থিতির প্রমাণ রয়েছে পায়ের মাপে। এর মধ্যে একটি পায়ের ছাপ প্রায় ১ ফুট লম্বা। গবেষকদের হিসেব বলছে, ওই নির্দিষ্ট ব্যক্তির উচ্চতা ছিল প্রায় ৫ ফুট ৭ ইঞ্চি। উত্তর ইউরোপে আদিম মানুষের অস্তিত্বের এমন প্রত্যক্ষ প্রমাণ এর আগে মেলেনি।

ন্যাশনাল হিস্ট্রি মিউজিয়ামের গবেষক ক্রিস স্ট্রিঞ্জারের মতে, ওই চিহ্নগুলি যাদের, তারা স্পেনে বসবাসকারী আদিম মানুষদের জাতভাই হোমো অ্যান্টেসেসর। তাদের বিবর্তনের পরে এসেছিল হোমো হেডেলবেরজেনসিস। আর তাদের সরিয়ে চার লক্ষ বছর আগে আসে নিয়ানডারথ্যাল।

এস রহমান/