ঝিনাইদহের প্রার্থীরা নির্বাচনী প্রচারণায় ব্যস্ত

0
113
jhinaida

jhinaida jpgঝিনাইদহ কালীগঞ্জ উপজেলা নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে আওয়ামী লীগের প্রার্থী ছাড়াই ৫ জন প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। নির্বাচনের দিন যতই ঘনিয়ে আসছে নির্বাচন ততই জমে উঠছে।

এবারের চেয়ারম্যান প্রার্থীরা হলেন- ডাক্তার নুরুল ইসলাম (বিএনপি মোটরসাইকেল), হামিুদুল ইসলাম (বিএনপি কাপপিরিচ), মাওলানা ওলিয়ার রহমান (জামায়াত হেলিকপ্টার), আমিরুল ইসলাম (জাতীয় পার্টি আনারস), বাবুল হোসেন (ইসলামী শাসনতন্ত্র আন্দোলন দোয়াতকলম)।

চেয়ারম্যান প্রার্থীরা প্রতিদিন কাকডাকা ভোর থেকে গভীর রাত পর্যন্ত বিভিন্ন গ্রামে মাঠ চষে বেড়াচ্ছেন। এদিকে নির্বাচনে আওয়ামী লীগের প্রার্থী না থাকার কারণে সাধারণ ভোটারদের মধ্যে ভোটের আমেজ অনেকটা নীরব হয়ে গেছে।

ভোটাররা জানান, আওয়ামী লীগের চেয়ারম্যান প্রার্থী না থাকার কারণে বিএনপির প্রার্থী বিজয় হবার সম্ভাবনা অনেকটা পরিস্কার হয়ে গেছে। বিএনপির নুরুল ইসলাম, হামিদুল ইসলাম ও জামায়াতের ওলিয়ার রহমান এর সাথে মূলত প্রতিদ্বন্দ্বিতা হবে।

এদিকে আওয়ামী লীগের একমাত্র প্রার্থী জাহাঙ্গীর সিদ্দিকি ঠাণ্ডু মনোনয়ন দাখিল করেন। কিন্তু তিনি বাছাই পর্বে বাদ পড়েন। ঠাণ্ডুর রয়েছে বিসিআইসির সারে ডিলার ফলে তার মনোনয়নপত্র বাতিল হয়ে যায়। তিনি প্রথমে ঢাকা হাইকোর্টে রিট ও পরে সুপ্রিম কোর্টে রিট করেন। রিটের শুনানি শেষে ঠাণ্ডুর মনোনয়ন বুধবার বিকালে বাতিল বলে ঘোষণা করেন। যে কারণে এবার উপজেলা নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে আওয়ামী লীগের কোনো প্রার্থী ছাড়াই নিবাচন অনুষ্ঠিত হচ্ছে। আগামি ১৯ ফেব্রুয়ারি কালীগঞ্জ উপজেলা নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে।

কেএফ