যেটি কম্পিউটার সেটিই লেখার বোর্ড

0
94
I board

I boardদেশের প্রযুক্তিখাতে যুক্ত হল ‘আই বোর্ড’ নামের নতুন একটি পণ্য। প্রযুক্তিবিদরা যেটাকে ‘অল ইন অন’ বলে আখ্যায়িত করেছেন। কম্পিউটার, টিভি, প্রোজেক্টর স্ক্রিন, লেখার বোর্ড সবই ব্যবহার করা যাবে পণ্যটিতে। শুধু তাই নয় এ আই বোর্ডে একসাথে চারজন লিখতে পারবে। আবার লেখাগুলো মুছতে ডাস্টারের প্রয়োজন হবে না। হাতেই মুছে ফেলতে পারবে। এতে হাতে লাগবে না কোনো ময়লা।

এছাড়া ডিভাইসটিতে একই সাথে ৪টি ভিডিও চালানো সম্ভব। ভিডিওগুলো ইচ্ছামতো ছোট-বড় কিংবা কোনাকোনি করে সাজানো যাবে। যেকোনো ভিডিও থেকে পছন্দ মতো স্থির চিত্র নেওয়া যাবে। এছাড়া ভিডিও চ্যাটের জন্য এতে ব্যবহার করা হয়েছে একটি ক্যামেরা। যা দিয়ে স্টিল ছবি তোলা যাবে।

এতসব সুবিধা নিয়ে ১৯তম ঢাকা আন্তর্জাতিক বাণিজ্য মেলার ই শপ প্যভিলিয়নে পণ্যটি প্রদর্শন করা হচ্ছে। বাংলাদেশে প্রথমবারের মত ডিবি টেকনোলজি এ পণ্যটি বাজারজাত করেছে। আর পণ্যটি তেরি করেছে চীন। মূলত ইন্টারঅ্যাকটিভ এলইডি হোয়াইট বোর্ডটি শিক্ষা খাত ও কর্পোরেট মিটিং কক্ষের জন্য নকশা করা।

৫৫ থেকে শুরু করে ৬৫, ৭০ ও ৮০ ইঞ্চির এ আই বোর্ডটির দাম ধরা হয়েছে সর্বনিম্ন ৭ লাখ টাকা থেকে সর্বোচ্চ ১৭ লাখ টাকা।

এই বোর্ডটি সম্পর্কে জানতে চাইলে ডিবি টেকনোলজির সিস্টেম ইঞ্জিনিয়ার ইকবাল হোসেন অর্থসূচককে বলেন, মূলত এটি একটি সুপার কম্পিউটার। এতে এক সাথে কম্পিউটার, টিভি, শিক্ষা বোর্ড, প্রোজেক্টর স্ক্রিন ব্যবহার করা যাবে।

এর বিভিন্ন সুবিধা উল্লেখ করে তিনি বলেন, যে কোনো শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের ক্লাসরুমে এটি বোর্ড হিসেবে ব্যবহার কো যাবে। যেখানে শিক্ষক ক্লাস শুরু থেকে শেষ পর্যন্ত যা লিখবেন তা ভিডিও ফরমেটে সেভ করা সম্ভব হবে। পরে সেগুলো শিক্ষার্থীরা ডাউনলোট করে নিতে পারবে।

এছাড়া কর্পোরেট হাউজগুলোতে স্লাইড শোর মাধ্যমে প্রেজেন্টেশন দেখানো যাবে। আই বোর্ডটির স্ক্রিন অনেক বড় তাই এতে আলাদা পর্দা ব্যবহার করতে হবে না বলেও জানান তিনি।

তিনি বলেন, এতে সব ডিভাইস ব্যবহারের জন্য সকল ধরনের পোর্ট দেওয়া আছে। যেখানে ব্যবহারকারী তার ইচ্ছামতো ডিভাইস ব্যবহার করতে পারবেন।

এছাড়া এই আই বোর্ডে খুব সহজেই দুটি পদ্ধতিতে লেখা সম্ভব। একটি স্ক্রিনের কিবোর্ড ব্যবহার করে। অন্যটি বিশেষ কলম ব্যবহার করে সাধারণ বোর্ডে লেখার মতো করে লিখলে সেটি কম্পিউটারের ফরমেট অনুযায়ী লেখা পাওয়া যাবে বলে জানান তিনি।।

ইকবাল আরও জানান, আই বোর্ডটির স্ক্রিনে হাই টেমপারড গ্লাস ব্যবহার করা হয়েছে। ফলে এটাতে খুব কাছে থেকে শর্ট গানের গুলি মারলেও ক্ষতিগ্রস্থ হবে না।

আর ইন্টারনেট ব্যবহারের সুবিধা সম্পর্কে তিনি বলেন, এই ডিভাইসে কোরআই-৩, ৫, ও ৭ প্রসেসর ব্যবহার করা হয়েছে। এতে উচ্চ গতির ইন্টারনেট ব্যবহার করা যাবে। এছাড়া আই বোর্ডে ওয়াইফাই সংযোগসহ ওয়েব ক্যামও রয়েছে।

এই আই বোর্ডটির ওজন ৭৫ কেজি। তাই এটি সহজে বহনযোগ্য নয়। তবে স্ট্যান্ড ব্যবহারে যেখানে খুশি সেখানে নেওয়া সম্ভব।

 

জেইউ