পুষ্টিযুক্ত খাবারে অনীহার কারণ কী?

0
103
food

foodকেউ কেউ বলে থাকেন দুধ আমার একেবারেই অপছন্দ, আবার কেউ বলেন মাছের গন্ধ আমি একেবারেই সহ্য করতে পারি না। খাবারে এ রকম হাজার হাজার পছন্দ অপছন্দ রয়েছে। তবে বিশেষজ্ঞরা বলছেন উল্টোকথা। তাদের ধারণা, এগুলো বিচারশক্তিহীন অপছন্দ ছাড়া আর কিছুই নয়।

বিশেষজ্ঞরা জানিয়েছেন, শৈশবে থেকে এসব খাবারের প্রতি ব্যক্তির অপছন্দ মনোভাবই ওই খাবারের প্রতি অনীহা তৈরি করে। তাছাড়া খাবার ভালোভাবে রান্না না হবার কারণেও এই অপছন্দ মনোভাব তৈরি হয়ে থাকে বলে মনে করেন তারা। ফলে এইসব খাবারের প্রয়োজনীয় পুষ্টি উপাদান থেকে বঞ্চিত হন অপছন্দ মনোভাবের ব্যক্তিরা।

চলুন জেনে নেওয়া যাক মানুষের অপছন্দের তালিকায় থাকা খাবারগুলো।

এক. মাশরুম :

বলা হয়, যদি আপনার এলার্জি সমস্যা না থাকে তবে মাশরুম না খাওয়ার অন্য কোনো কারণ নেই। এতে রয়েছে ‘ভিটামিন বি’সহ প্রচুর পরিমাণে প্রোটিন। তাছাড়া মাশরুম অনেক সুস্বাদু খাবার। তাই যারা খাবারটি অপছন্দ মনোভাবের কারণে খান না, তারা এসব উপাদান থেকে বঞ্চিত হবেন।

দুই. মাছ :

মাছে আছে প্রচুর আমিষ, ভিটামিন, খনিজদ্রব্য, আয়রন, ভিটামিন-সি, নিয়াসিন, ভিটামিন-ডি, ক্যালসিয়াম, ফসফরাস ও ভিটামিন-এ। শিশুদের রাতকানা রোগ ঠেকাতে ভিটামিন-এ সমৃদ্ধ মলা, ঢেলা। এছাড়া ছোট মাছে এ চর্বি কম থাকে।  দৃষ্টিশক্তির জন্য ছোট মাছ দরকার। তাই যারা মাছের গন্ধের দোহাই দিয়ে মাছ খাওয়া থেকে নিজেদের বঞ্চিত রাখেন, তারা এসব পুষ্টি উপাদান থেকেও বঞ্চিত হন। রান্নার জন্য এ গন্ধ থাকে বলে মনে করেন বিশেষজ্ঞরা।

তিন. টমেটো :

কিছু কিছু মানুষ আছে যারা টমেটো খেতে পছন্দ করেন না। এমন কি খেলেও তা রান্না করে কিং সস বানিয়ে খেতে পছন্দ করেন। তাদের জন্য সুসংবাদ দিচ্ছে এক গবেষণা। গবেষণাটি বলছে, রান্না করা কিংবা সস বানানো টমেটোর চেয়ে কাচা টমেটোতে এন্টিঅক্সিডেন্ট লিচোপেনের পরিমাণ বেশি থাকে। যা হৃদরোগ ও ক্যানসার প্রতিরোধে কাজ করে্। তাই যারা টমেটো কম পছন্দ করেন তারা এই ধরণের উপাদান থেকে বঞ্চিত হন বলে গবেষণায় জানা গেছে।

চার. ব্রোকলি

এমন কেউ বলতে পারবেন না যে একটু কাচা ব্রোকলি খেতে ভালবাসেন। বরং এটা সবারই জানা যে, ব্রোকলি জাতীয় সবজি যত বেশি কড়া রান্না করা যায় তত বেশি সুস্বাদু হয়। কিন্তু এতে রয়েছে প্রচুর পরিমাণে এন্টিঅক্সিডেন্ট। তাই চেষ্টা করুন হালকা তেল দিয়ে হালকা রান্না করে খেতে।

পাঁচ. দুধ:

দুধ ও দুগ্ধজাত খাবারে রয়েছে ক্যালসিয়াম ও ফসফরাস। যা দাঁতের গঠন ও বিকাশে উপকারী। দুধে প্রচুর পরিমাণে থাকা আমিষ ‘ক্যাসিন’ দাঁতের এনামেলের ওপর প্রতিরোধী পাতলা স্তর গড়ে তোলে। এছাড়া এতে রয়েছে সব ধরণের ভিটামিন যা হাড় গঠনে, হৃদরোগ প্রতিরোধে এবং দেহকে সুস্থ রাখতেও সাহায্যে করে।

ছয়. মুলা :

ভিটামিন সি সমৃদ্ধ সবজি মুলা। যা দেহের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বৃদ্ধি করতে সাহায্য করে। রক্ত পরিষ্কারক হিসেবে সহায়তা করে।কিডনী রোগসহ মূত্রনালির অন্যান্য রোগেও বেশ উপকারী এই মুলা। কিন্তু গন্ধের কারণে অনেকেই এই সবজিটি খেতে চান না। ফলে এর পুষ্টি উপাদান থেকে বঞ্চিত থাকেন তারা।

সূত্র: দ্য টাইমস অব ইন্ডিয়া।