কতভাগ কারখানা বর্ধিত মজুরি দিচ্ছে জানে না বিজিএমইএ

0
120

BGMEA_IMpactকতটি কারখানা পোশাক কর্মীদের বর্ধিত বেতন কাঠামো বাস্তবায়ন করতে পেরেছে এর সঠিক কোনো তথ্য বিজিএমইএর কাছে নেই বলে জানিয়েছেন সংগঠনটির সভাপতি আতিকুল ইসলাম। তাছাড়া বাংলাদেশ জিএসপি ফিরে পাবে বলেও আশা করেন তিনি।

বৃহস্পতিবার  বিকেলে ব্যবসা ও পোশাক কর্মীদের উন্নয়নে পরামর্শক প্রতিষ্ঠান ইমপ্যাক্টের সঙ্গে এক সমঝোতা চুক্তি স্বাক্ষর অনুষ্ঠানে  সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে তিনি এই কথা জানান।

সমঝোতা চুক্তি স্বাক্ষর অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন, বাংলাদেশে ডিএফআইডি এর প্রধান সারা কুক, ইমপ্যাক্টের প্রতিষ্ঠাতা পরিচালক রোজি হার্ট, রাজেস ভেদা কনসালটেন্সসির প্রধান নির্বাহী রাজেস ভেদা, বিজিএমইএর সহ-সভাপতি এসএম মান্নান কচি, রিয়াজ বিন মাহমুদসহ অন্যান্য নেতৃবৃন্দ।

অনুষ্ঠানে আতিকুল ইসলাম বলেন, পোশাক শিল্পের দু:সময়ে আমরা শ্রমিকদের মজুরি বৃদ্ধি করেছি। তবে এই বর্ধিত মজুরি কত শতাংশ বাস্তবায়ন হলো তার সঠিক তথ্য সংগঠনটির কাছে নেই। তিনি বলেন, ‘আমরা অনেক চেষ্টা করেছি সঠিক তথ্য বের করার জন্য’।

তাছাড়া, তাদের কাছে তথ্য আসার আগেই সংবাদ মাধ্যমে ৪০ থেকে ৪৪ শতাংশ বাস্তবায়নের খবর আসে বলে অভিযোগ করেন তিনি। তিনি বলেন, বর্ধিত মজুরি বাস্তবায়নের এক মাস পার হয়েছে। আস্তে আস্তে এই সমস্যা সমাধান হবে বলেও জানান তিনি।

তিনি বলেন, পোশাকশিল্প অনেক এগিয়েছে দাবি করেন। শ্রমিকদের মজুরি বেড়েছে। কারখানার কর্মপরিবেশ উন্নতি হয়েছে। শ্রম আইন সংশোধিত হয়েছে। সার্বিকভাবে পোশাক কারখানার উন্নতি হয়েছে। তাতে জিএসপি ফিরে পাবে বলে মনে করেন তিনি।

স্বাভাবিকভাবে পাকিস্তান জিএসপি পাওয়ায় প্রভাব পড়েছে বাংলাদেশে। আর ভারত এই সুবিধা পেলে এই খাত আরও চ্যালেঞ্জের মুখে পড়বে বলে মনে করেন তিনি।

তিনি আরও বলেন, রানা প্লাজার ধসের সময় পর্যন্ত দেশে মাত্র ১৩টি ট্রেড ইউনিয়ন ছিল। তারপর আজ পর্যন্ত ৯৬টি ট্রেড ইউনিয়ন নিবন্ধিত হয়েছে। এছাড়া আরও ৬৬টি ট্রেড ইউনিয়ন প্রক্রিয়াধীন আছে বলে জানান তিনি।

অনুষ্ঠানে রোজি হার্ট বলেন, ব্যবসা ও কর্মীদের সফলতা (বিবিডব্লিউ) কর্মসূচি ব্যবসা ও কর্মীদের দক্ষতার বৃদ্ধির জন্য খুবই জরুরি। পোশাক কারখানার শ্রমিকদের দক্ষতা নিয়ে চ্যালেঞ্জের মুখে পড়েছে কর্তৃপক্ষ।

ইতোমধ্যে এ কর্মসূচিটি ৪৫টি কারখানার মান উন্নয়নে ৮০ শতাংশ সফলতা পেয়েছে। এই কর্মসূচিতে জড়িত আছে ৮টি ক্রেতা প্রতিষ্ঠান। তারা হলেন, সিঅ্যান্ডএ, ডিবেনহামস, কে-মার্ট অস্ট্রেলিয়া, এমঅ্যান্ডকো, প্রিমার্ক, টার্গেট অস্ট্রেলিয়া, টেসকো ও তাওইনভেস্টমেন্ট ম্যানেজমেন্ট।

বিবিডব্লিউ সৃজনশীলভাবে কম খরচে কর্মীদের প্রশিক্ষণ, ব্যবসায়িক পরামর্শের মাধ্যমে কারখানার উন্নতি, উৎপাদনশীলতা, শ্রমিকদের দক্ষতা বৃদ্ধি ও মান উন্নয়ন, মানব সম্পদের উন্নতি ও কর্মসংস্থান সৃষ্টিতে কাজ করে।