জনগণ আজান দিয়ে হরতাল প্রত্যাখ্যান করেছে: মায়া

0
85
মোফাজ্জল হোসেন চৌধু্রী মায়া

মোফাজ্জল হোসেন চৌধু্রী মায়াজামায়াতের অবৈধ হরতাল জনগণ আজান দিয়ে প্রত্যাখ্যান করেছে- এমন মন্তব্য করেছেন ঢাকা মহানগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও ত্রাণমন্ত্রী মোফাজ্জল হোসেন চৌধুরী মায়া।
বৃহস্পতিবার বেলা ১১টায় বঙ্গবন্ধু এভিনিউ’র দলীয় কার্যালয়ের সামনে আওয়ামী সমর্থক জোট আয়োজিত মিছিল পূর্ব সমাবেশ ও মানববন্ধনে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

মায়া বলেন, “জনগণ এখন অনেক বেশি প্রতিবাদী হয়েছে। তাই জামায়াতকে শায়েস্তা করার জন্য তারা রাস্তায় বের হয়েছে। জনগণ আজান দিয়ে তাদের হরতাল প্রত্যাখ্যান করেছে”।
খালেদা জিয়ার নির্দেশেই দশ ট্রাক অস্ত্র চোরাচালান হয়েছিল এমন অভিযোগ করে তিনি বলেন, “দেশের ভাবমূর্তি নষ্ট করে স্বাধীনতাকে প্রশ্নবিদ্ধ করতেই খালেদা জিয়া দশ ট্রাক অস্ত্র এনেছিলেন। যতদিন তিনি কারাগারের বাইরে থাকবেন ততদিন দেশের বিরুদ্ধে চক্রান্ত করবেন”।

আইনের আওতায় এনে খালেদা জিয়াকে বিচারের কাঠগড়ায় দাড় করানোর কথা বলেন তিনি।

খালেদা জিয়া সবসময়ই জনগণ, সরকার, আইনের শাসন, যুদ্ধাপরাধীদের বিচারসহ মুক্তিযোদ্ধাদের বিপক্ষে অবস্থান নিয়েছেন বলেও অভিযোগ করেন তিনি।
সমাবেশে প্রধান বক্তা ও খাদ্যমন্ত্রী অ্যাডভোকেট কামরুল ইসলাম জামায়াতের হরতালকে রুটিনমাফিক কর্মসূচি আখ্যা দিয়ে বলেন, “যখনই তাদের(জামায়াতের) কোনো নেতার বিরুদ্ধে আদালত রায় দেয় তখনই রুটিনমাফিক তারা একটা কর্মসূচি ঘোষণা করে। ঢাকাসহ বাংলাদেশের কোথাও এই হরতালের কোনো প্রভাব পড়েনি বলেও মনে করেন তিনি।

কামরুল ইসলাম অভিযোগ করে বলেন “বাংলাদেশের তৎকালীন প্রধানমন্ত্রী বিদেশী একটি গোয়েন্দা সংস্থাকে অস্ত্র চোরাচালানের জন্য দেশের মাটিকে রুট হিসেবে ব্যবহার করতে দিয়েছিলেন”। এজন্য খালেদা জিয়াকে বিচারের আওতায় আনার কথা বলেন তিনি।

মহানগর আওয়ামী লীগের প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক এবং আওয়ামী সমর্থক জোটের সভাপতি আব্দুল হক সবুজের সভাপতিত্বে সমাবেশে বক্তব্য রাখেন মহানগর আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি ফয়েজ উদ্দিন মিয়া, মুকুল চৌধুরী, সাংগঠনিক সম্পাদক শাহে আলম মুরাদ, মহিলা বিষয়ক সম্পাদক জাহানারা বেগমসহ বিভিন্ন নেতারা।
এসএসআর