পপির চার কর্মকর্তার বিরুদ্ধে ৫ মামলা

0
30

ACC_123বিভিন্ন মহিলা সমিতির সদস্যদের সঞ্চয় ও কিস্তির টাকা লেজার বুকে না তুলে আত্মসাৎ করার অভিযোগে পিপলস ওরিয়েন্টাল প্রোগ্রাম (পপির) সাবেক চার কর্মকর্তার বিরুদ্ধে ৫টি মামলার অনুমোদন দিয়েছে দুর্নীতি দমন কমিশন দুদক। শিগগীরই উত্তরা ও মালিবাগ থানায় মামলাগুলো দায়ের করা হবে বলে জানিয়েছে কমিশন সূত্র।

বুধবার রাজধানীর সেগুন বাগিচায় কমিশনের বৈঠকে মামলাগুলো দায়ের অনুমোদন দেওয়া হয় বলে নিশ্চিত করেছে দুদকের নির্ভরযোগ্য সূত্র।

মামলার এজহার সূত্রে জানা যায়, ৬৭টি মহিলা সমিতি থেকে সদস্যদের সঞ্চয় ও কিস্তির ২ লাখ ৫২ হাজার ১৭৩ টাকা লেজার বুকে না তুলে পিপলস ওরিয়েন্টাল প্রোগ্রামের উত্তরা ও মালিবাগ শাখার চার সাবেক মাঠকর্মী জালিয়াতির মাধ্যমে আত্মসাৎ করে। এরমধ্যে পপির উত্তরা শাখার সাবেক মাঠকর্মী হারুনুর রশীদ এপ্রিল ২০০৮ থেকে এপ্রিল ২০০৯ পর্যন্ত  ১৫টি সমিতির বিভিন্ন সদস্যের কিস্তি ও সঞ্চয়ের ৪৭ হাজার ৪৭৫ টাকা আত্মসাৎ করেন। পপির একই শাখার সাবেক মাঠকর্মী শাহ আলম আগস্ট ২০০৮ থেকে মে ২০০৯ পর্যন্ত ১৪টি সমিতির ৯৩ হাজার ৯১২ টাকা, ইমাম হোসেন জুলাই ২০০৮ সালের জুলাই মাসে ১৪টি সমিতির ১৭ হাজার ৮৪১ টাকা ও ইয়াছুর রহমান ডিসেম্বর ২০০৭ থেকে মে ২০০৯ পর্যন্ত ১২টি সমিতির ২৯ হাজার ৬৫ টাকা লেজার বুকে না তুলে আত্মসাৎ করেন।

এছাড়া একই সংস্থার মালিবাগ শাখায় কর্মরত থাকা কালীন সাবেক মাঠকর্মী শাহ আলম ১২টি মহিলা সমিতির বিভিন্ন সদস্যদের নিকট থেকে ২০০৮ সালে ৬৩ হাজার ৮৮০ টাকা আত্মসাৎ করেন বলে দুদকের অনুসন্ধানে প্রমাণিত হয়।

কমিশন সূত্র জানায়, ২০০৯ সালে মহিলা সমিতির সদস্যদের অভিযোগের ভিত্তিতে কমিশনের উপ-পরিচালক সাইফুল্লাহ মোহাম্মদ এমরান অনুসন্ধান শেষে অভিযুক্ত বিরুদ্ধে প্রমাণ সাপেক্ষ্যে মামলা দায়েরের অনুমতি চান। কমিশন বিষয়টি যাচাই-বাছাই শেষে দন্ড বিধির ৪০৮/৪২০ ধারায় মামলা দায়েরের অনুমোদন দেয়।

এইউ নয়ন