ধর্ষণের বিরুদ্ধে মুখ খুললেন জয়া

prada10১৯৮৬ সালে প্রযোজক শ্রীকান্ত নাহাতাকে বিয়ে করেন। শ্রীকান্তের আগের বউ ও তিন সন্তান ছিল। ফলে এই বিয়ে নানা বিতর্কের সৃষ্টি করে। এখনও সতিনের সঙ্গে সমঝোতা করে সংসার করছেন।

শ্রীকান্তের ঘরে তাঁর কোনো সন্তান হয়নি। অভিনয় জগৎ থেকে অবসর গ্রহণের পর রাজনীতিতে জড়িয়ে পড়েছেন। রাজ্যসভা সদস্যও নির্বাচিত হয়েছেন কয়েক দফা। তিনি ভারতের সমাজবাদী পার্টির একজন সক্রিয় সদস্য হিসেবে বর্তমানে ব্যস্ত সময় কাটাচ্ছেন।

তিনি আর কেউ নন । তিনি হচ্ছেন বলিউডের একসময়ের সাড়া জাগানো,  সুন্দরী অভিনেত্রী জয়া প্রদা।

সম্প্রতি সময়ে ভারতে সবচেয়ে আলোচিত ঘৃন্য অপরাধের বিরুদ্ধে এবার  মুখ খুললেন ভারতীয় এই লোকসভাসদস্য  জয়া প্রদা। তিনি জানান, ধর্ষণকারীদের ফাঁসিতে ঝুলিয়ে মারা উচিত। ভারতের উত্তর প্রদেশের মানুষ এখন বিশ্বাস করতে শিখেছে দুর্ণীতি অপরাধের চেয়ে শ্রেয়। কারণ এই ঘৃণ্য অপরাধে তাদের  জীবন্ শঙ্কাগ্রস্ত।

গোয়াতে একটি চলচিত্রের শুটিং করতে যেয়ে সেখানকার পানাজিতে একটি গণমাধ্যম সংস্থা আইএএনএস কে তিনি একথা বলেন।

গত মাসের  ৭ ও ৮ নভেম্বর তেহেলকা’র ‘থিঙ্ক ফেস্টিভ্যাল’ উৎসবের সময়ে  গোয়ার একটি পাঁচতারা হোটেলের লিফটে তেজপালের বিরুদ্ধে তেহেলকারই এক মহিলা সহকর্মীকে যৌন নিগ্রহের অভিযোগে ধর্ষণের  মামলা হওয়ায়  তিনি তার বক্তব্যে এমন কথা বলেন।

তিনি আরো জানান, উত্তর প্রদেশে মেয়েদের কেউ এখন একা একা ঘরের বাইরে বের হতে পারে না। এমনকি ভারতের মুম্বাই এবং দিল্লীতে ও একই অবস্থা। তিনি এ অবস্থার নিন্দা জানিয়ে সব ধর্ষণকারীদের সর্বোচ্চ শাস্তি দাবি করেন।

এস আর