একনেকে অনুমোদন পেল ৬৪০ কোটি টাকার প্রকল্প

0
100
Govt.

eknekজাতীয় অর্থনৈতিক পরিষদের নির্বাহী কমিটিতে (একনেক) অনুমোদন পেয়েছে ৫টি উন্নয়ন প্রকল্প। নতুন ৪টি ও সংশোধিত ১টি প্রকল্প মিলিয়ে এসব প্রকল্পে মোট ব্যয় ধরা হয়েছে ৬শ ৪০ কোটি টাকা। সরকারি তহবিল থেকে ব্যয় ধরা হয়েছে ৫৫৮ কোটি টাকা এবং সংস্থার নিজস্ব তহবিল থেকে ৮২ কোটি টাকা।

মঙ্গলবার ১টা ৩০মিনিটে রাজধানীর শেরেবাংলা নগরের এনইসি সম্মেলন কক্ষে বৈঠকটি অনুষ্ঠিত হয়। প্রধানমন্ত্রী ও একনেক চেয়ারপারসন শেখ হাসিনা বৈঠকটিতে সভাপতিত্ব করেন।

সভা শেষে পরিকল্পনামন্ত্রী সাংবাদিকদের সামনে প্রকল্পগুলোর বিস্তারিত বিবরণ তুলে ধরেন। প্রসঙ্গত এটি বর্তমান সরকারের তৃতীয় একনেকের বৈঠক। আগের দুই বৈঠকে যথাক্রমে ৭৭৩৫ কোটি এবং ৯১১০ কোটি টাকার প্রকল্প অনুমোদন পায়।

অনুমোদন পাওয়া প্রকল্পগুলো হল- নোয়াখালী জেলার সুবর্ণচর উপজেলায় ডাল ও তৈলবীজ বর্ধন খামার এবং বীজ প্রক্রিয়াজাতকরণ কেন্দ্র স্থাপন। প্রকল্পটির ব্যয় ধরা হয়েছে ৩৪ কোটি ১৩ লাখ টাকা। সরকারি তহবিল থেকে ৩২ কোটি ৪ লাখ টাকা ও নিজস্ব তহবিল থেকে ২ কোটি ৮ লাখ।

৭৭ কোটি ২৪ লাখ টাকা ব্যয়ে রাজশাহী, নওগাঁ ও চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলায় পুরাতন গভীর নলকূপ পুনর্বাসন প্রকল্প। সরকারি তহবিল থেকে ৩২ কোটি ৪ লাখ টাকা ও নিজস্ব তহবিল থেকে ২ কোটি ৮ লাখ।

২৮টি জেলায় আনুষাঙ্গিক সুবিধাদিসহ জেলা জজ আদালত ভবনের ঊর্ধ্বমুখী সম্প্রসারণ প্রকল্প। এতে ব্যয় ধরা হয়েছে ১৪৯ কোটি ৯১ লাখ টাকা। সরকারি তহবিল থেকে সম্পুর্ণ অর্থ ব্যয়ে প্রকল্প বাস্তবায়ন করা হবে।

দোহার-কাটাখালী নিকড়া-গালিমপুর-টিকরপুর সড়ক উন্নয়ন প্রকল্প। এতে ব্যয় ধরা হয়েছে ৪৬ কোটি ৪৭ লাখ টাকা।

এছাড়া অ্যাকটিভ ফার্মাসিউটিক্যাল ইনগ্রিডিয়েন্ট (এপিআই) শিল্প পার্ক (২য় সংশোধিত) প্রকল্প বাস্তবায়নে মোট ব্যয় ধরা হয়েছে ৩৩১ কোটি ৮৬ লাখ টাকা। সরকারি তহবিল থেকে ২৫১ কোটি ৮৬ লাখ টাকা ও নিজস্ব তহবিল থেকে ৮০ কোটি ব্যয়ে প্রকল্পটি বাস্তবায়ন করা হবে।

এদিকে এ পর্যন্ত মোট প্রকল্পের সংখ্যা ১৫৭টি। এর মধ্যে নতুন প্রকল্প ৯৭টি এবং চলমান প্রকল্প ৬০টি। এসব প্রকল্পের মোট ব্যয় ৯৫৮৩ কোটি টাকা। এসব প্রকল্পে জিওবি থেকে ৫৪৮১৭ কোটি টাকা, প্রকল্প সাহায্য থেকে ৩৮ হাজার ২৩৭ কোটি টাকা এবং নিজস্ব তহবিল থেকে ২৭ হাজার ৭৫ কোটি টাকা।

কবির/