উৎসাহ উদ্দিপনার মধ্য দিয়ে পালিত হচ্ছে সরস্বতী পূজা

0
234
স্বরস্বতি পূজা

স্বরস্বতি পূজাসবাই মগ্ন বিদ্যা দেবী সরস্বতীর ধ্যানে । একটু পরপর দেওয়া হচ্ছে অঞ্জলী। ঠাকুর বাচ্চাদের কোলে তুলে নিয়ে বিদ্যা দেবীর কাছে তার লেখা-পড়ার উন্নতির জন্য আরাধনা করছেন। যাতে সে বিদ্যা-বুদ্ধিতে সেরা হতে পারে। অঞ্জলী শেষে ঠাকুর বাচ্চাদের হাতে তুলে দিচ্ছেন একটি আদর্শ লিপির বই।

এভাবেই পালিত হচ্ছে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের জগ্নাথ হলের সরস্বতী পূজা মণ্ডপে। বাণী-অর্চনার আরাধ্যের মধ্যে প্রতিবছর মাঘ মাসের শুক্ল পক্ষের পঞ্চমী তিথিতে শ্বেতশুভ্র কল্যাণময়ী বিদ্যাদেবীর আবাহন করা হয়।

জগ্নাথ হলের ঠাকুর সাধন ঠাকুর অর্থসূচককে বলেন, আজ  সরস্বতী বিদ্যার ও ললিতকলার অধিষ্ঠাত্রী দেবী হিসেবে পুজিত হবেন। ঐশ্বর্যদায়িনী, বুদ্ধিদায়িনী, জ্ঞানদায়িনী, সিদ্ধিদায়িনী, মোক্ষদায়িনী এবং শক্তির আধার হিসেবে সরস্বতী দেবীর আরাধনা করা হয়।

তিনি বলেন, সরস্বতী দেবী শ্বেতশুভ্র বসনা। দেবীর এক হাতে বেদ, অন্য হাতে বীণা। এজন্য তাকে বীণাপানিও বলা হয়। সনাতন ধর্মীয় বিশ্বাস অনুযায়ী, জ্ঞান ও বিদ্যার অধিষ্ঠাত্রী দেবী তার আশীর্বাদের মাধ্যমে মানুষের চেতনাকে উদ্দীপ্ত করতে প্রতিবছর আবির্ভূত হন ভক্তদের মাঝে।

পূজা মণ্ডপে আশা সুমন সাহার কাছে জানতে চেয়েছিলাম কেন এসেছেন তিনি উত্তরে বলেছিলেন, আমরা আজ মা সরস্বতীর কাছে বিদ্যার জন্য এসেছি। মা আজ  আমাদের জন্য বিদ্যা নিয়ে আসবেন।   তিনি বলেন, আমরা শিক্ষার্থীরা যেন এই লেখাপড়ায় মনোযোগী হই। ভাল করে পড়া-শুনা করি এ জন্যই আজ  এখানে আসা।

উল্লেখ্য, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় জগ্নাথ হলসহ প্রত্যেক বিভাগে একটি করে মণ্ডপ রয়েছে।

পূজা আয়োজক কমিটি জানিয়েছে আজ  সারাদিন জাকমকপূর্ণ অবস্থায় পালিত হবে সরস্বতী পূজা। পূজার পাশাপাশি থাকছে বিভিন্ন সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান।

অর্থসূচক.কম/এসএস