বই মেলায় ক্রমেই বাড়ছে ক্রেতার সমাগম

0
65
fair

fairহিমেল হাওয়ার বিকেল যতই এগিয়ে সন্ধ্যার পর রাতের পথে হাটছে,  লোক সংখ্যা ক্রমেই বাড়ছে। তবে আজ বই মেলার তৃতীয় দিন হলেও লোক সমাগম গত বছরের তুলনায় খুবই কম। প্রকাশক, লেখক ও স্টলের লোকজন এখন পর্যন্ত বেশি লক্ষ করা যাচ্ছে। বেকার সময় কাটাচ্ছে দোকানদাররা। এখনও স্টল তৈরীর কাজ শেষ হয়নি। তবে সব কিছু ছাড়িয়ে সবার আশা মেলা তার প্রাণ ফিরে পাবে অল্প কিছু দিনের মধ্যে।

প্রকাশক ও লেখকের কাছ থেকে জানাযায়,  বই মেলা এখনো জমে ওঠেনি। তবে শুক্রবার নাগাদ এ মেলা জমে উঠবে।

তবে অনেকেই বলছেন এ বছর হঠাৎ করে মেলার বর্ধিত করে সোরওয়ার্দীতে হওয়ায় লোক সমাগম একটু কমেছে। মেলা  সোরওয়ার্দীতে যাওয়ায় স্টল মালিকরা এখনও তাদের স্টলের কাজ শেষ করতে পারছে না।

সব না পারা ক্লান্তি ছাড়িয়ে প্রতিদিন প্রকাশিত হচ্ছে নতুন নতুন বই। আজও তার ব্যতিক্রম নয় আজ বই মেলায় প্রকাশিত হচ্ছে নতুন ৬০ টি বই। এর মধ্যে কবিতা, ছড়া ও কাব্য গ্রন্থ রয়েছে ১৩টি, উপন্যাস ৭টি, প্রবন্ধ ৭টি, গল্প ৮টি এবং বাকি সব বই আলোচনা ও সাক্ষাতকার মূলক বই।

আজ নতুন বইয়ের মধ্যে রয়েছে স্বনাম ধন্য লেখক জাফর ইকবালের দুটি বই একটি প্রবন্ধ মিথ্যা বলার অধিকার ও অন্যান্য যার দাম ২০০ টাকা এবং কিশোর কবিতা “ভয় কিংবা ভালবাসা” এর দামও ২০০ টাকা। এছাড়া আনিসুল হকের রম্য রচনা “যত কান্ড চিয়ার নিয়া” যার দাম ২০০ টাকা। প্রকাশ করেছে অনুপম প্রকাশনী।

কথা হয়েছিল কবিতা পত্র স্টলের আবদুল আলিমের সাথে তিনি জানান, এখন পর্যন্ত তেমন কোন বেচা-কিনা শুরু হয় নাই। লোকজন কম তাই বসে আছি।

তবে তিনি জানান, শুক্রবার নাগাদ বই মেলা জমে উঠবে, কারণ এখন অনেকেই বেতন পাননি, বেতন পেলে শুক্রবারের দিকে তারা মেলায় আসবে।

কথা হয়েছিল বিশিষ্ট গণমাধ্যম ব্যক্তিত্ব ও শিশু সাহিত্যিক আলী ইমামের সাথে তিনি বলেন, মেলায় এখন লোক সমাগম কম হলেও সন্ধ্যার পর পরই বাড়বে।

তার কাছে জানতে চেয়েছিলাম মেলায় আসতে কি কোন রাজনৈতিক অস্থিরতার কাজ করছে মানুষের মধ্য, তিনি উত্তরে বলেন দেশের রাজনৈতিক অবস্থাতো এখন শান্ত আগের মত হরতাল অবরোধ নাই।

তিনি বলেন, বাংলাদেশে কোনো কিছুই স্বাভাবিকভাবে হওয়ার পথ বন্ধ হলেও যা কিছু করতে হবে এর মধ্যই করতে হবে বসে থাকলে চলবে না।

এ বছর তার কয়টি বই প্রকাশ হয়েছে জানতে চাইলে তিনি বলেন, এ বছর আমার ৩০ টির মত বই প্রকাশ হচ্ছে। এর মধ্যে বেশি রয়েছে শিশুদের এ্যাডভাঞ্চার রহস্য মূলক বই।

তিনি বলেন, আমি শিশুদের নিয়ে লিখতে বেশি পছন্দ করি কারণ তারা আগামির কর্ণধার। এদের ভিতর যদি দেশ প্রেম দেশের কথা সাহিত্যের মাধ্যমে ঢুকিয়ে দেয়া যায় তাহলে তাদের কাছে দেশ অনেক কিছু পাবে।

সাকি/