শেখ হাসিনা এখন জেল সুপার : গয়েশ্বর

0
63
Goyesshor

Goyesshorআজ দেশের ৫৬ হাজার বর্গমাইলই একটি কারাগারে পরিণত হয়েছে। আর এই কারাগারের জেল সুপার শেখ হাসিনা নিজেই বলে মন্তব্য করেছেন বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য গয়েশ্বর চন্দ্র রায়।

রোববার বেলা ১টায় রাজধানীর জাতীয় প্রেসক্লাব মিলনায়তনে বিএনপি নেতা-কর্মীদের হত্যা, গুম ও দায়েরকৃত ষড়যন্ত্রমূলক মিথ্যা মামলা প্রত্যাহার এবং সকল রাজবন্দীর মুক্তির দাবিতে বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী যুবদল আয়োজিত এক সমাবেশে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

গয়েশ্বর বলেন, বিরোধী দলকে দমন করতে সরকার ৫৬ হাজার বর্গমাইলকে কারাগার বানিয়েছেন। তার ৩০০ সংসদ সদস্য হলেন সেই কারাগারের কারারক্ষী। জনগণ এখন কার কাছে মুক্তি চাইবে?

তিনি বলেন, জনগণকে ঐক্যবদ্ধ হয়ে ৫৬ হাজারের বর্গমাইলের কারাগার ভেঙ্গে দেশকে মুক্ত করতে হবে।

তিন সরকারের এক দেশ তার নাম বাংলাদেশ এমন মন্তব্য করে তিনি বলেন, রোম পোড়ার সময় নিরু যেমন বাঁশি বাজিয়েছেন তেমনি আমাদের দেশ যখন পুড়ছে তখন প্রধানমন্ত্রী গান গাইছেন।

সমাবেশের বিশেষ অতিথি বিএনপির যুগ্ম-মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী বলেন, কারাগার থেকে মক্তি পেয়ে মনে হচ্ছে কারাগারের ভেতর আর বাহির একাকার। কারাগারের বাইরে থাকলে কার লাশ কোথায় পাওয়া যাবে তার কোনো নিরাপত্তা নেই।

আন্দোলন আরও তীব্র করতে হবে তাছাড়া স্বৈরাচারী সরকার জাতীয়তাবাদী শক্তিতে ধ্বংস করে দিতে দেবে এমন আশংকা প্রকাশ করে তিনি বলেন, আমাদের আন্দোলন আরও সক্রিয় করতে হবে। তাদের অত্যাচার এতটাই বর্বরতায় রুপ নিয়েছে যে আত্নগোপন করেও লাভ নেই তারা ঘরে গিয়ে না পেলে পরিবারের সদস্যদের উপর হামলা চালাচ্ছে।

এ সরকার জনগণের নয় অন্য কারও প্রতিনিধিত্ব করছে এমন অভিযোগ করে তিনি বলেন, এই সেবাদাসের সরকার বিদেশি প্রভুদের মনোরঞ্জনের জন্য কাজ করে যাচ্ছে।

যুবদলের কেন্দ্রীয় কমিটির সিনিয়র সহ-সভাপতি এ্যাডভোকেট আবদুস সালাম আজাদের সভাপতিত্বে ও মীর নেওয়াজ আলী নেওয়াজের সঞ্চালনায় সমাবেশে আরও উপস্থিত ছিলেন- যুবদলের সভাপতি এ্যাডভোকেট মোয়াজ্জেম হোসেন আলাল, যুবদলের দপ্তর-সম্পাদক কাজি রফিক প্রমুখ।

এমআর