যুক্তরাষ্ট্রে ছয় শিশুসহ এক পরিবারের আটজন খুন

Texas
যুক্তরাষ্ট্রের টেক্সাসে শিশুসহ একই পরিবারের আটজনকে খুন। একটি মরদেহ পুলিশ ভ্যানে তোলা হচ্ছে।

টেক্সাসে হাতকড়া লাগানো অবস্থায় একই পরিবারের আটজনের মরদেহ উদ্ধার করেছে যুক্তরাষ্ট্রের পুলিশ। এদের মধ্যে ছয়জন শিশুও রয়েছে। ঘটনাস্থল থেকে ডেভিড কনলে (৪৮) নামে একজনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে।

Texas
যুক্তরাষ্ট্রের টেক্সাসে শিশুসহ একই পরিবারের আটজনকে খুন। একটি মরদেহ পুলিশ ভ্যানে তোলা হচ্ছে।

নিহতরা তারা হলো- ডিওয়াইনে জ্যাকসন (৫০), তার স্ত্রী ভ্যালেরি জ্যাকসন (৪০) এবং তাদের সন্তান নাথানিয়াল (১৩), ডিওয়াইনে (১০), ওনেস্টি (১১), কালিব (৯), ট্রিনিটি (৭) এবং জোনাহ (৬)।

ধারণা করা হচ্ছে, ভ্যালেরি জ্যাকসনের সঙ্গে ডেভিড কনলের অতীতে সম্পর্ক ছিল। নাথানিয়াল কনলেরই সন্তান।

পুলিশের বরাত দিয়ে বিবিসির প্রতিবেদনে জানানো হয়েছে, গত শনিবার দিনের শেষভাগে টেক্সাসের হাউস্টন থেকে খবর পেয়ে সেখানে অভিযানে যায় পুলিশের একটি দল। সেখানে গিয়ে প্রথমে একটি শিশুর মরদেহ দেখার পর বাড়িতে প্রবেশের চেষ্টা চালায় পুলিশ। তখন ভেতর থেকে গুলি করে। প্রায় এক ঘণ্টা গোলাগুলির পর পুলিশের সঙ্গে সমঝোতার ভিত্তিতে আত্মসমর্পণ করে ডেভিড কনলে। তার বিরুদ্ধে সর্বোচ্চ পর্যায়ে খুনের অভিযোগ আনা হয়েছে।

হ্যারিসের কাউন্টি শেরিফ অফিস থেকে জানানো হয়েছে, পুলিশ ওই বাড়ির ভেতরে প্রবেশের চেষ্টা করলে আগে থেকেই সেখানে থাকা এক ব্যক্তি গুলি চালায়।

আদালতের নথি থেকে জানা গেছে, সর্বশেষ ১৯৮৮ সালে ডেভিড কনলের বিরুদ্ধে অপরাধের ইতিহাস রয়েছে।

শেরিফের কার্যালয় থেকে বলা হয়েছে, হত্যাকাণ্ডের মোটিভ সম্পর্কে পুরোপুরি নিশ্চিত হওয়ার সম্ভব হয়নি। তবে ভ্যালেরির সঙ্গে মনোমালিন্যের কারণে এমনটি ঘটে থাকতে পারে বলে পুলিশ ধারণা করছে। কনলেকে কারাগারে পাঠানো হয়েছে।