রাজবাড়ীতে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ ডাকাতের মৃত্যু

gunfight 2
ছবিটি প্রতীকী

রাজবাড়ীর পাংশায় পুলিশের সঙ্গে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ আব্দুর রব (২৮) নামে ডাকাতি মামলার এক আসামির মৃত্যু হয়েছে। গতকাল রোববার রাত পৌনে ১টার দিকে কলিমহর ইউনিয়নের গোপালপুর গ্রামের একটি বাঁশবাগানে গোলাগুলির এই ঘটনা ঘটে।

ছবিটি প্রতীকী
ছবিটি প্রতীকী

পাংশা থানার ওসি আবু শামা ইকবাল হায়াত জানান, পাংশার কলিমহর ইউনিয়নের ফলিমারা গ্রামের আব্দুর রহমানের ছেলে আব্দুর রব। তার বিরুদ্ধে ডাকাতির অভিযোগে পাংশাসহ বিভিন্ন থানায় তিনটি মামলা রয়েছে। রব আন্তঃজেলা ডাকাত দলের সদস্য। সে ও তার দলের লোকেরা মহাসড়কে গাছ ফেলে ডাকাতি করতো।

তিনি জানান, পাংশা থানা পুলিশ গোপন সংবাদের ভিত্তিতে গতকাল রোববার রাত ১১টার দিকে রবকে গ্রেপ্তার করে। প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে সে অস্ত্র থাকার কথা স্বীকার করলে তা উদ্ধারে তাকে নিয়ে গোপালপুর গ্রামে যায় পুলিশের একটি দল। ওই বাঁশবাগানে অবস্থান নিয়ে থাকা রবের সহযোগীরা পুলিশের উপস্থিতি টের পেয়ে গুলি শুরু করে। আত্মরক্ষার জন্য পুলিশও পাল্টা গুলি করে। গোলাগুলির মধ্যে রব আহত হয়।

ওসি আরও জানান, গুলিবিদ্ধ রবকে ফরিদপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে গেলে সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় সকালের দিকে তার মৃত্যু হয়। পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে একটি ওয়ানশুটার গান ও গুলি উদ্ধার করেছে।

প্রসঙ্গত, চার দিন আগে পাংশা উপজেলার মাছপাড়া ইউনিয়নের বুড়ুরিয়া গ্রামে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ আব্দুস সোবহান খান (৪৯) নামে আরেকজন নিহত হন। তার বিরুদ্ধে ডাকাতি, হত্যা, হত্যাচেষ্টা ও অবৈধ অস্ত্র রাখার অভিযোগে ছয়টি মামলা থাকার কথা জানিয়েছে পুলিশ।