সচিবের উপস্থিতিতে ৬৮০ টাকার বিল ২২০ টাকা !

0
34
Trade-Fair

Trade-Fair-14.01.14আন্তর্জাতিক বাণিজ্য মেলায় দর্শনার্থীর অভিযোগের ভিত্তিতে অভিযান চালালে খাবার হোটেলে ৬৮০ টাকার বিল কমে হয়ে গেলো ২২০ টাকা। মেলায় দায়িত্বরত ভোক্তা অধিকারের উপ-সচিবের উপস্থিতিতে এ ঘটনা ঘটে। পরে  কর্তৃপক্ষ থেকে ‘বিজয় শাহ বিরিয়ানী’কে শেষ বারের মতো সাবধান করে দেওয়া হয়।

শুক্রবার ছুটির দিনে এভাবেই মেলার মাঠে সক্রিয় ভূমিকা পালন করতে দেখা গেছে ভোক্তা অধিকার কর্তৃপক্ষকে। দর্শনার্থীদের অভিযোগগুলো আমলে নিয়েই চলছে তাঁদের এ সাঁড়াশি অভিযান। দোকানে দোকানে গিয়ে কর্মকর্তারা শুনছেন দর্শনার্থীদের অভিযোগ আর দোকানীদের দিচ্ছেন সতর্কবার্তা।

গতকাল (শুক্রবার) বিকেলে রবিউল ইসলাম বাবলু নামে এক দর্শনার্থী খেতে বসেন বাণিজ্য মেলার ‘বিজয় শাহ বিরিয়ানী’ তে। ২টি বার্গার আর আধা লিটার পানি খেলে দোকানী ৬৮০টাকার একটি বিল ধরিয়ে দেয় তার হাতে। বিল দেখে বাবলুর চোখ উঠলো কপালে।  দোকানীর সাথে হালকা বাগবিতণ্ডা করে সোজা চলে যান মেলায় অবস্থিত রপ্তানি উন্নয়ন ব্যুরোর (ইপিবি) কাছে। সেখানে গিয়ে তিনি অভিযোগ করেন দোকানীর বিরুদ্ধে।

এ সময় ইপিবিতে উপস্থিত ছিলেন ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণের ঢাকা কার্যালয়ের উপ-সচিব শাহ আলম। সব কিছু দেখে উনি নিজেই অভিযানে নামেন মেলার মাঠে। অভিযোগকারী দর্শনার্থীকে সাথে নিয়ে প্রথমেই তিনি যান অভিযুক্ত ‘বিজয় শাহ বিরিয়ানী হাউজে’। কথা বলেন স্টলটিতে কর্তব্যরতদের সাথে।

এ সময় স্টলে উপস্থিত ছিলেন স্টলটির স্বত্বাধিকারী হুমায়ন কবির।

অতিরিক্ত বিল নেওয়ার ব্যাপারে জানতে চাইলে তিনি বলেন, ‘আমি এর কিছুই জানি না। যে বয় (দোকানের কর্মচারী) বিল দিয়েছে সে সব জানে। তবে সে এখন দোকানে নেই।’

এ সময় কর্তৃপক্ষের সাথে  বেশ কিছুক্ষণ কথা কাটাকাটির পর অবশেষে হুমায়ন কবির অতিরিক্ত নেওয়া বিলের টাকা ক্রেতাকে ফিরিয়ে দেন।

জেইউ/ এআর