ব্যাংকের এডিআর কমছে

0
164
বাংলাদেশ ব্যাংক
বাংলাদেশ ব্যাংক ভবন (ফাইল ছবি)

BBব্যাংকগুলোর অগ্রিম আমানতের অনুপাত (এডিআর) দিন দিন কমছে । বাংলাদেশ ব্যাংকের হিসেব থেকে দেখা যায় ২৬ ডিসেম্বর পর্যন্ত ব্যাংকগুলোর গড় এডিআর নেমে দাঁড়িয়েছে ৭০ দশমিক ৬৬ শতাংশে। আগের সপ্তাহ অর্থাৎ ১৯ ডিসেম্বর এর পরিমাণ ছিল ৭০ দশমিক ৮০ শতাংশ।

বাংলাদেশ ব্যাংকের কর্মকর্তারা জানিয়েছেন ব্যবসা-বাণিজ্যের মন্দার কারণে ব্যবসায়ীরা ব্যাংক থেকে ঋণ নিচ্ছেন না। সেক্ষেত্রে ব্যাংগুলোতে জমা হওয়া আমানতের তুলনায় ঋণ সরবরাহ কমেছে । ফলে ব্যাংকে নগদ টাকার পাহাড় জমছে, কমছে এডিআর।

বাংলাদেশ ব্যাংকের সর্বশেষ তথ্য অনুযায়ী, ২০১৩ সালের ২৬ ডিসেম্বর ব্যাংকগুলোর এডিআর এর পরিমাণ দাঁড়িয়েছে ৭০ দশমিক ৬৬ শতাংশ। যা ১৯ ডিসেম্বর ছিল ৭০ দশমিক ৮০ শতাংশ। ১৪ নভেম্বর এর পরিমাণ ছিল ৭১ দশমিক ৯১ শতাংশ। ২০১২ সালের ৭ জুন এডিআর-এর পরিমাণ ছিল ৮০ দশমিক ৩৩ শতাংশ আর ৩১ ডিসেম্বর ছিল ৭৬ দশমিক ৫৯ শতাংশ।

তথ্য অনুযায়ী, ২০১৩ সালের ১০ জানুয়ারি ব্যাংকগুলোর গড় এডিআর এর পরিমাণ ছিল ৭৬ দশমিক ৯৫ শতাংশ। ৭ ফেব্রুয়ারি ছিল ৭৬ দশমিক ২৮ শতাংশ, ১৪ মার্চ ছিল ৭৫ দশমিক ২৮ শতাংশ, ২৫ এপ্রিল ছিল ৭৫ দশমিক ২৬ শতাংশ, ২ মে ছিল ৭৪ দশমিক ৯০ শতাংশ, ১৩ জুন ছিল ৭৪ দশমিক শূন্য এক শতাংশ, ১১ জুলাই ছিল ৭৩ দশমিক ৩৫ শতাংশ, ১ আগস্ট ছিল ৭৩ দশমিক ৩৪ শতাংশ, ২৬ সেপ্টেম্বর ৭১ দশমিক ৬৫ শতাংশ, ২১ অক্টোবর ছিল ৭১ দশমিক ৮৫ শতাংশ এবং ১৪ নভেম্বর ছিল ৭১ দশমিক ৯১ শতাংশ।

বাংলাদেশ ব্যাংকের নিয়ম অনুযায়ী বাণিজ্যিক ব্যাংকগুলো তাদের মূলধনের শতকরা ৮৫ শতাংশ ঋণ দিতে পারে। আর শরীয়াহ ভিত্তিক ব্যাংক এবং বিভিন্ন ব্যাংকের শরীয়াহ শাখার জন্য এ হার নির্ধারণ করা আছে সবোর্চ্চ ৯০ শতাংশ।

তথ্য অনুযায়ী, ২৬ ডিসেম্বর পর্যন্ত রাষ্ট্রায়ত্ত্ব চারটি ব্যাংকের গড় এডিআর রয়েছে ৫৬ দশমিক শূণ্য ৫ শতাংশ, ৩৯ টি দেশীয় বাণিজ্যিক ব্যাংকের গড় এডিআর ৭৬ দশমিক ৭২ শতাংশ, ৯টি বিদেশি বাণিজ্যিক ব্যাংকের গড় এডিআর ৬৪ দশমিক ৬২ শতাংশ এবং ৪টি বিশেষায়িত ব্যাংকের গড় এডিআর রয়েছে ৭৬ দশমিক ৭১ শতাংশ।

দেশের তফসিলভুক্ত মোট ৫৬ টি ব্যাংকের মধ্যে ৩২টি ব্যাংক, ইসলামী শরীয়াহ ভিত্তিক ব্যাংক এবং বিভিন্ন ব্যাংকের শরীয়াহ শাখার এডিআর ৭০ শতাংশের নিচে রয়েছে।