পুঁজিবাজারে শরীয়াসম্মত কোম্পানি বাড়ানো হবে

0
86
Titu_DSE
ডিএসই ব্রোকারস অ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশ-এর সভাপতি আহসানুল ইসলাম টিটু

Titu_DSEইসলামী ধারার প্রতিষ্ঠানগুলোকে সেকেন্ডারি মার্কেটে বিনিয়োগের সুযোগ করে দিতে শরীয়াহসম্মত কোম্পানির সংখ্যা বাড়ানোর উদ্যোগ নেবে ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জ (ডিএসই)। আর এর মাধ্যমে বিনিয়োগের এক নতুন সম্ভাবনা সূচিত হবে বলে মনে করছেন ডিএসই সভাপতি।

বৃহস্পতিবার দুপুরে ডিএসই বোর্ড রুমে ইসলামী প্রতিষ্ঠানগুলোর প্রতিনিধিদের সাথে বৈঠক শেষে এক সংবাদ সম্মেলনে ডিএসইর সভাপতি আহসানুল ইসলাম টিটু এ কথা বলেছেন।

তিনি বলেন,পুঁজিবাজারে শরীয়াহভিত্তিক প্রতিষ্ঠানগুলোর আগ্রহ বাড়াতে ডিএসই শরীয়াহ সূচক চালু করেছে। শরীয়াহ অনুসারে পরিচালিত অনেক ব্যাংক,বিমা ও আর্থিক প্রতিষ্ঠান এতদিন সেকেন্ডারি মার্কেটে খুব একটা বিনিয়োগ করতো না। এখন তারা নিজস্ব পোর্টফোলিও তৈরি করতে পারবে।

শরীয়াহ সূচকে অন্তর্ভুক্ত কোম্পানিগুলোর লভ্যাংশও শরীয়াহসম্মত হবে বলে জানান ডিএসই সভাপতি। তিনি বলেন,শরীয়াহসম্মত লভ্যাংশ নিশ্চিত করতে কোম্পানিগুলোর ঘোষণা করা লভ্যাংশ যাচাই-বাছাই করে দেখা হবে।

তিনি বলেন,যেকোন কোম্পানির শরীয়াহভিত্তিক আয় থাকতে পারে।আবার শরীয়াহ-বহির্ভুত আয়ও থাকতে পারে।তাই লভ্যাংশ ঘোষণার পর যাচাই-বাছাই করে শরীয়াহ বহির্ভুত আয় বাদ দেওয়া হবে।

বৃহস্পতিবারের বৈঠকে অ্যাসেট ম্যানেজমেন্ট কোম্পানি এবং শরীয়াহ ভিত্তিক ব্যাংক,বীমা ও আর্থিক প্রতিষ্ঠানের কাছে ডিএসইর শরীয়াহ সূচকের ম্যাথডলজি সম্পর্কে জানানো হয়েছে।অগামীতে ডিএসইর সাথে প্রতিষ্ঠানগুলো এক সাথে কাজ করবে বলে আশা প্রকাশ করেছে।

উল্লেখ্,গত ২০ জানুয়ারি শরীয়াহভিত্তিক প্রতিষ্ঠানগুলোর বিনিয়োগ বাড়ানোর লক্ষ্যে ডিএসই আনুষ্টানিক ভাবে শরীয়াহ সূচক চালু করে।৭০টিরও বেশি শরীয়াহভিত্তিক প্রতিষ্ঠানকে দুইটি ক্যাটাগরিতে বাছাই করে পুঁজিবাজারে নিয়ে আশা হবে।

বৈঠকে আইসিবি ইসলামি ব্যাংক,আল আরাফা ইসলামি ব্যাংক,সোস্যাল ইসলামি ব্যাংক,এক্সিম ব্যাংক,শাহজালাল ইসলামি ব্যাংক,ফার্স্ট সিকিউরিটি ইসলামি ব্যাংক,ইসলামি ফিন্যান্স অ্যান্ড ইনভেস্টমেন্ট,ফার ইস্ট ইসলামি লাইফ ইন্স্যুন্সের শীর্ষ নির্বাহীরা উপস্থিত ছিলেন।