কিশোরগঞ্জে গৃহবধূ হত্যার কথা স্বীকার করলেন স্বামী

0
73

kishoreganjকিশোরগঞ্জের মিঠামইন উপজেলার গুচ্ছ গ্রামের গৃহবধূ কমলা খাতুন হত্যার কথা স্বীকার করেছেন স্বামী হাবিবুর রহমান। গতকাল রোববার বিকেলে পুলিশি জিজ্ঞাসাবাদের পর এ হত্যাকাণ্ডের কথা স্বীকার করেন তিনি।

মিঠামইন থানার ওসি নাসির উদ্দিন ভুঁইয়া জানান, সাত মাস আগে উপজেলার গুচ্ছ গ্রামের শফিকুল ইসলামের মেয়ে কমলা খাতুনের সাথে একই গ্রামের আশ্রাব আলীর পুত্র হাবিবুর রহমানের বিয়ে হয়। বিয়ের পর থেকেই গৃহবধূ কমলা খাতুনকে কারণ-অকারণে নির্যাতন করে আসছিল শ্বশুরবাড়ির লোকজন। শুক্রবার গভীর রাতে স্বামী হাবিবুর রহমান ও তার লোকজন কমলাকে মারধর করে। এতে সে মারা যায়। শনিবার সকালে থানা পুলিশ নিহতের লাশ উদ্ধার করে। এ সময় জিজ্ঞাসাবাদের জন্যে নিহতের স্বামী হাবিবুর রহমান ও শ্বশুর আশ্রাব আলীকে আটক করে পুলিশ। রোববার বিকেলে জিজ্ঞাসাবাদের এক পর্যায়ে কমলার স্বামী হাবিবুর রহমান তার স্ত্রীকে নিজ হাতে হত্যা করেছেন বলে স্বীকার করেছেন। স্বীকারোক্তির পর ঘাতক স্বামী হাবিবুর রহমানকে কিশোরগঞ্জ আদালতে সোপর্দ করা হলে আদালত তার জামিন নামঞ্জুর করে কারাগারে পাঠিয়েছে।