‘প্রতিযোগী মা’ হবেন না

0
31
mother-child

জন্মের পর ধীরে ধীরে মা এবং বাবা বাচ্চার সবচেয়ে কাছের মানুষ হয়ে ওঠেন। সব না জানা প্রশ্নের উত্তর, সমস্যার সমাধান বা উৎসাহে ঘাটতি দেখা দিলে সন্তান ছুটে আসে মা-বাবার কাছেই। ফলে সন্তানকে সঠিকভাবে বড় করে তোলার জন্য প্রথমে তৈরি হতে হবে বড়দেরই। মা-বাবার মধ্যে পজিটিভ রোল মডেল খুঁজে পেলে ভালো-মন্দ, ন্যায়-অন্যায়বোধ গড়ে ওঠে সহজেই।

mother-childতাই বলে তাদের প্রত্যেকটা কাজে  মায়েদের প্রতিযোগী ভাব নিয়ে চললে ঠিক হবে না। এতে করে শিশুর ওপর নেগেটিভ প্রভাব পড়তে পারে। এতে শিশুর মনোজগতে অতিরিক্ত চাপ পড়ে।

তাই জেনে নিন শিশুদের সঙ্গে আচরণের সময় মায়েরা কোন বিষয়গুলো মনে রাখবেন-

১. মাতৃত্বের ভূমিকা কখনোই কোনো দৌড় প্রতিযোগিতা নয়। এটা একটি দায়িত্ববোধের জায়গা, আপনার একটি অন্যতম পেশা। এর জন্য প্রয়োজন ভালোবাসা, যত্ন নেওয়া, বিশেষ মনোযোগ দেওয়া। এর কোনো শেষ নেই। ঝেড়ে ফেলুন শিশুদের সঙ্গে আপনার প্রতিযোগিতামূলক মনোভাব।

২. অন্য শিশুর মায়েদের প্রতিযোগিতাপূর্ণ আচরণ দেখে আপনার শিশুর সঙ্গেও একই আচরণ করবেন না। বরং শিশুদের বুঝতে দিন শিশুরাও তাদের মেধা দিয়ে অনেক কিছুকে জয় করতে পারে। তাই তাদের সব সম্ভাবনাকে নস্যাৎ না করে দিয়ে তাদের ওপর প্রতিযোগিতাপূর্ণ চাপ কমান। দেখবেন শিশুরাও আপনার কথা শুনছে।

৩. সত্যিকার মা হোন, কখনও শিশুদের সঙ্গে কোনো প্রতিযোগিতাকে প্রশ্রয় দিবেন না।

৪. মনে রাখা দরকার, আপনার মাতৃত্বের দক্ষতা কিংবা অভিজ্ঞতা বৃদ্ধির জন্য এটা কোনো টেস্ট পরীক্ষা নয়। আপনার শিশু তার নিজস্ব মেধা, ক্ষমতা দিয়ে প্রতিযোগিতাপূর্ণ এই বিশ্বে ধীরে ধীরে বড় হয়ে উঠছে।