বন্দুকযুদ্ধে ৩ শিবির কর্মী নিহত

0
41
সাতক্ষীরা ও ঝিনাইদহ

সাতক্ষীরা ও ঝিনাইদহসাতক্ষীরা ও ঝিনাইদহে যৌথবাহিনী ও পুলিশের মধ্যে বন্দুকযুদ্ধে তিন জামায়াত শিবির কর্মী নিহত হয়েছে।

আমাদের সাতক্ষীরা প্রতিনিধি জানায়, জেলার দেবহাটা উপজেলার নারিকেলবাড়িয়া এলাকায় যৌথবাহিনীর সঙ্গে বন্দুকযুদ্ধে ২ শিবির কর্মী নিহত হয়েছে।

রোববার ভোর ৫ টার এ বন্দুকযুদ্ধের ঘটনা ঘটে।

নিহক ব্যক্তিরা হচ্ছেন উপজেলা শিবিরের সেক্রেটারি আবুল কালাম ও শিবিরের কর্মী মারুফ হোসেন।

দেবহাটা উপজেলার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা তারক জানান, শনিবার ভোরে দুই জনকে আটক করা হয়। জিজ্ঞাসাবাদ শেষে আটক দুইজনকে সাথে নিয়ে বিভিন্ন এলাকায় অভিযানে নামে যৌথবাহিনী। ভোর পাঁচটার দিকে নারকেলি গ্রামের আফগানিস্তান ফেরত যোদ্ধা জিয়াউর রহমান ওরফে জিয়ার বাড়ির দক্ষিণ পাশে পৌঁছে যৌথ বাহিনী। এসময়  ওতপেতে থাকা সন্ত্রাসীরা যৌথবাহিনীকে লক্ষ্য করে ৫০টি গুলি ও ১৫টি বোমার বিস্ফোরণ ঘটায়। যৌথবাহিনীও পাল্টা হামলা চালায়। দুই পক্ষের মধ্যে গুলিবিনিময়ের সময় কালাম ও মারুফ গুরুতর আহত হন। তাঁদের উদ্ধার করে প্রথমে দেবহাটা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নেওয়া হয়। পরে সাতক্ষীরা সদর হাসপাতালে নেওয়া হলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তৌহিদুজ্জামান তাঁদের মৃত ঘোষণা করেন।

তিনি জানান, কালাম ও মারুফের বিরুদ্ধে ৮ থেকে ১০ টি মামলা রয়েছে।

আমাদের ঝিনাইদহ প্রতিনিধি জানায়, ঝিনাইদহের কোটচাঁদপুর উপজেলার নওদাপাড়া গ্রামে পুলিশের গুলিতে উপজেলা জামায়াতের অর্থ সম্পাদক মাস্টার এনামুল হক নিহত হয়েছেন।

আটক এনামুল উপজেলার চাঁদপাড়া গ্রামের আব্দুল মালেক বিশ্বাসের ছেলে ও বলরামপুর মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষক।
কোটচাঁদপুর উপজেলা জামায়াতের আমির তাজুল ইসলাম জানান, উপজেলা নির্বাচন অফিসের সামনে থেকে গতকাল বিকাল ৪ টার সময় সাদা পোশাকধারী পুলিশের একটি দল তাকে আটক করে।