মূলধনী যন্ত্রপাতির আমদানি বেড়েছে ৯৩ শতাংশ

0
34
Capital Machinery
মূলধনী যন্ত্রাংশ (ফাইল ছবি)

ক্যাপিটাল মেশিনারীরাজনৈতিক অস্থিরতা কমার সাথে সাথে  আবারও ঘুরে দাঁড়াতে শুরু করেছে দেশের শিল্প খাত। হরতাল, অবরোধে সৃষ্ট অনিশ্চয়তায় ব্যবসায়ীরা মূলধনী যন্ত্রপাতি আমদানি করছিলেন না। ফলে গত কয়েক মাসে মূলধনী যন্ত্রপাতির আমদানিতে নিম্নমুখী ধারা লক্ষ করা যায়। গত বছরের শেষ অর্থাৎ ডিসেম্বর মাসে মূলধন যন্ত্রপাতি আমদানির জন্য ঋণপত্র খোলার হার বেড়েছে নভেম্বরের তুলনায় ৯৩ শতাংশ এবং ঋণপত্র নিষ্পত্তির হার বেড়েছে ২৮ শতাংশ। বাংলাদেশ ব্যাংকের ঋণপত্র সংক্রান্ত প্রতিবেদন থেকে এ তথ্য জানা গেছে।

প্রতিবেদন অনুযায়ী, নভেম্বর মাসে মূলধনী যন্ত্রপাতি আমদানির জন্য ঋণপত্র খোলা হয়েছিল ১৬ কোটি ৮২ লাখ ৮০ হাজার মার্কিন ডলারের। আর এ মাসে মূলধনী যন্ত্রপাতির ঋণপত্র নিষ্পত্তি হয়েছিল ১৫ কোটি ৭৬ লাখ ৬০ হাজার মার্কিন ডলারের। ডিসেম্বরে এসব পণ্য আমদানির জন্য ঋণপত্র খোলা হয়েছে ৩২ কোটি ৪৮ লাখ ৯০ হাজার মার্কিন ডলারের। আর নিষ্পত্তি করা হয়েছে ২০ কোটি ১৮ লাখ ৭০ হাজার মার্কিন ডলারের। অর্থাৎ, নভেম্বরের তুলনায় ডিসেম্বরে ঋণপত্র খোলার হার বেড়েছে ৯৩ শতাংশ এবং নিষ্পত্তি বেড়েছে ২৮ শতাংশেরও বেশি।

সংশ্লিষ্টরা বলছেন, নির্বাচনকে ঘিরে রাজনৈতিক অস্থিরতায় গত কয়েক মাস ব্যবসায়ীদের মধ্যে অনিশ্চয়তা দেখা দেয়। ফলে দেশের ব্যবসা-বাণিজ্য তথা দেশে সামগ্রিক অর্থনৈতিক পরিস্থিতি স্থবির হয়ে পড়ে। এ কারণে মূলধনী যন্ত্রপাতির আমদানি অনেক কমে যায়। কিন্তু নতুন বছরের শুরুতে ব্যবসায়ীরা নতুন উদ্যমে কাজ শুরুর আশায় এসব যন্ত্রপাতি আমদানির চেষ্টা করছে। তাই শুধু ডিসেম্বরেই এ খাতে ঋণপত্র খোলার হার বেড়েছে প্রায় দ্বিগুণ। নিষ্পত্তিও অনেক বেড়েছে বলে জানান তারা। দেশে অস্থিতিশীলতা আবার শুরু না হলে এ ধারা আরও বাড়বে বলে মনে করেন তারা।