এগারো বছরে পা দিল মঙ্গলে পাঠানো রোভান যান

0
68
nasa rover-mars

nasa rover-marsদেখতে দেখতে কেটে গেল ১০টি বছর। এবার এগারোতে পা দিয়েছে নাসার মঙ্গলে পাঠানো রোভার যান। এই দশ বছরে সেখানে পানির উপস্থিতি খুঁজতে সক্ষম হওয়াকে যন্ত্রটির মূল সফলতা হিসেবে মনে করা হচ্ছে। পাড়ি জমানোর এগারো বছরে পদার্পন উপলক্ষে যুক্তরাষ্ট্রের ওয়াশিংটন বিশ্ববিদ্যালয়ে অনুষ্ঠিত এক সেমিনারে এ তথ্য জানিয়েছেন নাসার রোভার মিশনের মুখপাত্র রে আরভিডসন। খবর ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেসের ।

খবরে বলা হয়, ২০০৪ সালের ২৪ জানুয়ারী মঙ্গলে পাড়ি জমায় রোভার যন্ত্রটি। তখন থেকেই সেখানে আদৌ প্রাণের অস্তিত্ব ছিল কিনা, মঙ্গলের আবহাওয়া, পরিবেশ সম্পর্কে নাসা বিজ্ঞানীদের তথ্য দিয়ে যাচ্ছে যানটি।

সেমিনারে উপস্থিতিদের সামনে ওই মুখপাত্র জানান, শীতল ও উষ্ণ গ্রহটিতে একসময় অগ্নুৎপাত ঘটতো, তার জ্বালামুখ দিয়ে হাইড্রোথারমাল পদার্থ, বাষ্প, ধোঁয়া বের হতো। এছাড়া সেখানে ছিল নদী, জলধারা, হৃদ ইত্যাদি। তিনি জানান, এর আগে যন্ত্রটি সেখানে  শিলাখণ্ড, পদচিহ্ন, মৌলিক রাসায়নিকের সন্ধান, বরফের সন্ধান পেয়েছে।

তিনি বলেন, ‘পৃথিবীর মতো মঙ্গলগ্রহ বসবাসযোগ্য কিনা সে ব্যাপারে দীর্ঘ ১০ বছর ধরে অনুসন্ধানের কাজ চালিয়ে যাচ্ছি আমরা’। ভু-তত্ত্বের গঠন প্রক্রিয়া বিশ্লেষণ করে আমরা জানতে পেরেছি মঙ্গল গ্রহে একসময় প্রাণের অস্তিত্ব ছিল, ফলে ভবিষ্যতে গ্রহটি বসবাসের উপযোগী হতে পারে বলে আশা প্রকাশ করেন তিনি।

তিনি আরও বলেন, ‘আমরা সেখানে পাথর আবিষ্কার করেছি, প্রাণীর বসবাসের জন্য সেখান আবহাওয়া উপযোগী কি না তাও নিয়েও কাজ করছি এখন’। তবে সবমিলিয়ে সেখানে প্রাণের অস্তিত্বের সাথে অঙ্গাঅঙ্গিভাবে জড়িত সুপেয় পানি খুঁজে পাওয়াটাই মুখ্য হিসেবে ধরা দিয়েছে নাসার কাছে।

এস রহমান/