সিইসির কথা শুনলেন না উত্তরের মেয়র প্রার্থীরা

নিজস্ব প্রতিবেদক

0
89
CEC Kazi Rakibuddin Ahmed
প্রধান নির্বাচন কমিশনার কাজী রবিকউদ্দিন আহমেদ। ফাইল ছবি

মতবিনিময় সভায় প্রধান নির্বাচন কমিশনার (সিইসি) কাজী রকিবউদ্দিন আহমেদের কথা না শুনেই চলে গেলেন ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশন নির্বাচনের অধিকাংশ মেয়র প্রার্থী।

CEC Kazi Rakibuddin Ahmed
প্রধান নির্বাচন কমিশনার কাজী রবিকউদ্দিন আহমেদ। ফাইল ছবি

রাজধানীর খামারবাড়ির পাশে কৃষিবিদ ইনস্টিটিউটে আজ রোববার দুপুরে ঢাকা উত্তর সিটির নির্বাচনে প্রার্থীদের সঙ্গে সিইসির মতবিনিময় সভায় এ ঘটনা ঘটে।

মতবিনিময় সভার শেষ পর্যন্ত সবাইকে থাকতে বার বার অনুরোধ করেন নির্বাচন কমিশন সচিব মো. সিরাজুল ইসলাম। কিন্তু সচিবের অনুরোধ উপেক্ষা করে বের হয়ে যান মেয়র প্রার্থীরা। এর আগে তারা নিজেরা বক্তব্য দেন। এসময় সিইসির কাছে নিজেদের দাবি পেশ করেন তারা।

সভা শেষ হওয়ার আগে চলে যাওয়া মেয়র প্রার্থীদের মধ্যে ছিলেন আওয়ামী লীগ সমর্থিত আনিসুল হক, বিএনপি সমর্থিত তাবিথ আউয়াল, মাহী বি. চৌধুরী, বাহাউদ্দিন বাবুল, খান মুহাম্মাদ মজলিশ প্রমুখ। এছাড়া মতামত দিতে না পেরে সিইসির বক্তব্যের আগেই চলে যান কাউন্সিলরা প্রার্থীরাও।

কয়েকজন প্রার্থীর সঙ্গে কথা বললে তারা জানান, প্রচার কাজে চলে যাচ্ছেন তারা।

এসময় সিইসি কাজী রকিবউদ্দিন আহমেদ বলেন, ঢাকা সিটি করপরেশন নির্বাচন সুষ্ঠু, অবাধ, নিরপেক্ষ ও গ্রহণযোগ্য করতে যা করা দরকার, তাই করা হবে। নির্বাচন গ্রহণযোগ্য করতে ভোট কেন্দ্রে প্রার্থীদের প্রতিনিধিদল, সাংবাদিক, নির্বাচন পর্যবেক্ষণ দলের সামনেই ভোট গণনা হবে।

তিনি বলেন, আইন-শৃঙ্খলা বাহিনীকে বলা আছে; প্রয়োজনে আবারও বলছি, ভোটাররা যাতে নির্বিঘ্নে ভোট কেন্দ্রে হাজির হয়ে ভোট দিতে পারেন সেজন্য প্রশাসনিকভাবে সর্বোচ্চ ব্যবস্থা গ্রহণ করতে হবে।

সাংবাদিকদের উদ্দেশে সিইসি বলেন, আপনারা প্রার্থীদের নাম ও প্রতীক প্রচার করবেন।

রকিবউদ্দিন বলেন, আমরা ইতোমধ্যে ৬টি সিটি নির্বাচন অবাধ ও সুষ্ঠুভাবে সম্পন্ন করেছি। সেগুলোতে সহযোগিতার দৃষ্টান্ত স্থাপন করেছেন প্রার্থী ও ভোটাররা। আশা করবো, আগের মতোই সবার সহযোগিতায় এগিয়ে যাবো আমরা।

এর আগে মেয়র পদপ্রার্থী আনিসুল হক বলেন, সব প্রার্থী যেন মিডিয়া কাভারেজ পায়, সে বিষয়টি নজর দেওয়া উচিত।

তাবিথ আউয়াল বলেন, পুলিশের হয়রানির কারণে অনেক নেতাকর্মী এখনও আত্মগোপনে আছেন। তাই নির্বাচনের আগে তাদের জামিনের ব্যবস্থায় সিইসির সহযোগিতা প্রয়োজন। এসময় নির্বাচনের আগে অবৈধ অস্ত্র উদ্ধারের আহ্বানও জানান তিনি।

এমআই/এমই/