খালেদার বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়ার ঘোষণা নাসিমের

0
36
Nasim

Nasimসংখ্যালঘু নির্যাতন প্রতিরোধে দেশব্যাপী যৌথবাহিনীর অভিযান নিয়ে খালেদা জিয়ার বক্তব্যকে দায়িত্বহীন, অহেতুক ও উদ্দেশ্যমূলক আখ্যায়িত করে তার বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়ার কথা বলেছেন ১৪ দলের সমন্বয়ক ও স্বাস্থ্যমন্ত্রী মোহাম্মদ নাসিম।

বৃহস্পতিবার আওয়ামী লীগ সভানেত্রীর ধানমণ্ডি কার্যালয়ে কেন্দ্রীয় ১৪ দলের বৈঠক শেষে এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি এ কথা বলেন।

নাসিম বলেন, “খালেদা জিয়া যৌথবাহিনীর এই অভিযান নিয়ে দায়িত্বহীন ও উদ্দেশ্যপ্রণোদিত বক্তব্য দিয়েছেন।তিনি প্রতিবেশী একটি দেশকে নিয়ে ইঙ্গিতপূর্ণ কথা বলেছেন”। যৌথবাহিনীর অভিযানকে ভিনদেশি লোকের অনুপ্রবেশ বলে অহেতুক বিতর্ক উসকে দেওয়ার চেষ্টা করায় খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে আইনি ব্যবস্থা গ্রহণের কথা বলেন তিনি।

খালেদা জিয়া উদোর পিণ্ডি বুধোর ঘাড়ে চাপাচ্ছেন এমন অভিযোগ করে স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেন, “যারা বিএনপিকে কুপরামর্শ দিয়ে দলকে ডুবিয়েছে, সারাদেশে নাশকতা তৈরি করে মানুষকে জিম্মী করেছে আর সংখ্যালঘুদের বাড়িঘর পুড়িয়েছে তাদেরকে চিহ্নিত করেন”।

মধ্যবর্তী নির্বাচন কিংবা সমঝোতানির্ভর একাদশ সংসদ নির্বাচন হবে কি না এমন প্রশ্নের উত্তরে আওয়ামী লীগের এই প্রেসিডিয়াম সদস্য বলেন, “সংবিধানের ধারাবাহিকতা রক্ষার জন্য আমরা নির্বাচন করেছি এবং পাঁচ বছরের জন্য নির্বাচিত হয়েছি। ভবিষ্যতেও আমরা সংবিধান অনুযায়ী কাজ করে যাব।সংবিধান অনুযায়ী নির্বাচন যখন হওয়ার কথা তখনই হবে”।

থাই প্রধানমন্ত্রী ইনলাক সিনাওয়াত্রার সরকারের বিরুদ্ধে আন্দোলনের প্রসঙ্গ টেনে তিনি বলেন, “এই আন্দোলন থামানোর জন্যে থাইল্যান্ডে জরুরি অবস্থা জারি করেছে সরকার। কারণ সেখানে সাধারণ জনগণের অংশগ্রহণ ছিল। আর বিএনপির আন্দোলনে মানুষ তো দূরের কথা দলের নেতা-কর্মীরাও প্রত্যাখ্যান করেছে”।

নাসিম বলেন, “নির্বাচন প্রতিরোধের নামে বিএনপি ভোটারদের ভয় দেখিয়েছে, বাড়িঘর ও স্কুল জ্বালিয়ে দিয়েছে। এমনকি কাদের মোল্লার ফাঁসি কার্যকর করার সময়ও তারা চাপ সৃষ্টি করেছে। কিন্তু সব চাপ মোকাবেলা করে আমরা সফল হয়েছি”।

নির্বাচনের আগে ও পরে আইনশৃঙ্খলা রক্ষায় গুরুত্বপূর্ণ অবদান রাখায় নির্বাচন কমিশন, সেনা বাহিনী, র‌্যাব, পুলিশ, বিজিবি ও আনসার বাহিনীকে ধন্যবাদ জানান তিনি।পাশাপাশি সংবাদ সংগ্রহ ও সরবরাহ করার জন্য সাংবাদিকদেরও ধন্যবাদ জানান।

সভায় মোহাম্মদ নাসিমের সভাপতিত্বে দেশের বর্তমান প্রেক্ষাপট নিয়ে ১৪ দলের মধ্যে আলোচনা। এছাড়া সদ্যপ্রয়াত বিচারপতি হাবিবুর রহমান ও টাঙ্গাইল-৮ আসনের সংসদ সদস্য শাহজাহান এবং দেশব্যাপী সহিংসতায় নিহতদের জন্য শোক প্রস্তাব আনা হয় সভায়।

এসএসআর