ফরিদপুরের ভাঙ্গায় সংঘর্ষের ঘটনায় দুইটি মামলা দায়ের

0
70
ফরিদপুর

ফরিদপুরফরিদপুরের ভাঙ্গা উপজেলার ইলিয়াচ মাতুব্বরের নিহত হওয়ার ঘটনায় ২০ জনকে আসামীকে হত্যা মামলা দায়ের করা হয়েছে।এই হত্যা মামলায় উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ফাইজুর রহমানকে প্রধান আসামী করা হয়েছে ।

এ ঘটনায় ইলিয়াছের স্ত্রী রেশমা বেগম বাদী হয়ে ভাঙ্গা থানায় এ হত্যা মামলাটি করেন। ফাইজুর রহমানসহ মামলা আসামি করা হয়েছে, থানা যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক সেক শাহিন, ওমর ফারুক হবি, আঃ রাজ্জাক ফকির, শরীফুজ্জামান শরীফ, লুৎফর চোকদার, আরাফাত শেখ, ওয়াহিদুজ্জামান, ওমর আলী খরাতি, শেখ সৈয়াদ আলী, ইমরান আহম্মেদ জুয়েল, ফরহাদ শেখ, খোকন শেখ, নুরুজ্জামান নুরু, আসাদুজ্জামান মাতুব্বর, রুস্তম খা, আজিম মিয়া, বাবর আলী, রোমান সর্দার।

অন্যদিকে,সংঘর্ষের ঘটনায় থানার উপ-পরিদর্শক মো.মিরাজ বাদী হয়ে পুলিশের কাজে বাধা দেওয়ার অপরাধে ২১ জনকে আসামী করে অপর একটি মামলা করেছে।

পুলিশ এ ঘটনায় নিহত ইলিয়াছের চাচাত ভাই আবু বক্করকে আটক করেছে।

এদিকে পাল্টা-পাল্টি মামলা ও উপজেলার আওয়ামী লীগের নেতাদের নামে মামলা হওয়ায় এলাকায় চরম উত্তেজনা বিরাজ করছে। সংঘর্ষস্থল মুনসুরাবাদ উচ্চ বিদ্যালয় সহ গুরুত্বপুর্ণ স্থানে পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে।

উল্লেখ্য, গত বুধবার বিকালে মুনসুরাবাদ উচ্চ বিদ্যালয়ের ম্যানেজিং কমিটির নির্বাচন চলাকালে সভাপতি প্রার্থী উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ফাইজুর রহমান ও অপর সভাপতি প্রার্থী ওয়হিদুজ্জামান গ্রুপ এবং পুলিশের মধ্যে গোলাগুলির ঘটনা ঘটে। এতে ওয়াহিদুজ্জামান গ্রুপের ১ জন নিহত ও ২জন গুলিবিদ্ধ হয়।

কেএফ