এনএসএ প্রতিদিন ২০ কোটি তথ্য চুরি করে

0
77

NSA-Telephone-Recordsযুক্তরাষ্ট্রের জাতীয় নিরাপত্তা সংস্থার (এনএসএ) তথ্যচুরির গল্প বেশ পুরোনো হয়ে এসেছে। বিশ্বের বিভন্ন দেশের সমালোচনা,হুমকিও শুনতে হয়েছে যুক্তরাষ্ট্র সরকারকে। সেই আলোচিত তথ্যচুরির বিষয়ে নতুন আরও তথ্য জানালো গার্ডিয়ান পত্রিকা।

শুক্রবার গার্ডিয়ান পত্রিকার বরাত দিয়ে বিবিসির এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, প্লেন ভ্রমন, নেটওয়ার্ক যোগাযোগ , আর্থিক লেনদেন ডাটাভিত্তিক তথ্যর ওপর  সারা বিশ্ব থেকে যুক্তরাষ্ট্রের জাতীয় নিরাপত্তা সংস্থার (এনএসএ) একদিনে প্রায় ২০ কোটির মতো বার্তা সংগ্রহ করে তা সংরক্ষণ করে থাকে।

তবে এনএসএ দাবি করেছে  এই তথ্য চুরি করা হয়নি। এনএসএ কোনো অপরাধ সংঘটনের উদ্দেশ্যে এই ডাটা সংগ্রহ করে না, আইনসম্মত ভাবে তারা এই এসএমএস তথ্য সংগ্রহ করে। তাই এটা অযৌক্তিক নয়।

বিবিসির ওই প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, এসএমএস-এর মাধ্যমে পাঠানো বার্তা থেকে তারা এই তথ্য উপাত্ত সংগ্রহ করে তা সংরক্ষণ করে।

এনএসএ সুত্র জানিয়েছে, স্নোডেন চাঞ্চল্যকর বহু গোয়েন্দা তথ্য ফাঁস করে যুক্তরাষ্ট্রের জাতীয় নিরাপত্তাকে প্রশ্নের মুখে ঠেলে দিয়েছেন বলে অভিযোগ রয়েছে। আজ শুক্রবার প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামা এন এসএর কার্যক্রম তুলে ধরে যুক্তরাষ্ট্রের এই তারবিহীন নজরদারি সিস্টেম পরিবর্তন করা যায়কিনা সে ব্যাপারে একটি দীর্ঘ প্রতীক্ষিত বক্তব্য দেবেন।

এনএসএর সাবেক চুক্তিভিত্তিক কর্মী এডওয়ার্ড  স্নোডেন  দেশটির ইন্টারনেট নজরদারি কর্মসূচির তথ্য ফাঁস করে দিয়ে বৈশ্বিকভাবে আলোচনার কেন্দ্রবিন্দুতে চলে আসেন।

গতকাল হোয়াইট হাউজে যুক্তরাজ্যের প্রধানমন্ত্রী ডেভিড ক্যামেরুনের উপস্থিতিতে  এক সংক্ষিপ্ত বিবৃতিতে এনএসএর কার্যক্রম তুলে ধরার ব্যাপারে এ ঘোষণা দেন তিনি।