রাজশাহীতে শিবিরের হামলায় আহত তিন পুলিশ কর্মকর্তা অনুদান পেলো

0
68
rajshahi

রাজশাহী মানচিত্ররাজশাহীতে শিবিরের হামলায় আহত তিন পুলিশ কর্মকর্তাকে এক লাখ টাকার অনুদান দিয়েছে পুলিশ বিভাগ।

বৃহস্পতিবার মহানগর পুলিশ কমিশনারের কার্যালয়ে আনুষ্ঠানিকভাবে ব্যারিস্টার মাহবুব রহমান চৌধুরী শিবিরের ককটেল বিস্ফোরণে আহত পুলিশের শিক্ষাণবিশ এসআই মবকুল হোসেনের বাবা আনসার আলীকে, এসআই জাহাঙ্গীর আলমকে এবং ট্রাফিক পুলিশের ইন্সপেক্টর নজরুল ইসলামের হাতে অনুদানের অর্থ তুলে দেন।

এসময় আহতদের উদ্দেশ্যে ব্যারিস্টার মাহবুব রহমান বলেন, অংকের দিক দিয়ে এটি হয়তো কোনো টাকায় নয়, তবে আমাদের প্রচেষ্টার কোনো ত্রুটি নেই। আমরা যে পুলিশ সদস্যদের পাশে আছি- সেটিই বড় বিষয়। আমরা তাদের পাশে সবসময় আছি এবং থাকব।

অনুষ্ঠানে অন্যান্যদের মধ্যে অতিরিক্ত পুরিশ কমিশনার সরদার তমিজ উদ্দিন আহমেদ, উপপুলিশ কমিশনার (সদর) তানভির হায়দার চৌধুরী, সহকারী পুলিশ কমিশনার সাইফুর রহমান, মিজান উদ্দিন, বোয়ালিয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা জিয়াউর রহমান, রাজপাড়া থানার এবিএম রেজাউল করিম প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

উল্লেখ্য, গত বছরের ৩১ মার্চ মহানগরীর রানী বাজার এলাকায় শিবির-পুলিশ সংঘর্ষে ককটেল বিস্ফোরণে শিক্ষাণবিশ এসআই মকবুল হোসেনের ডান হাতের হাতের কবজি ও বাম হাতের একটি আঙ্গুলসহ বাকি আঙ্গুলগুলোর অর্ধেক অংশ উড়ে যায়। পরেরদিন মহানগরীর শালবাগান এলাকায় পুলিশ-শিবিরের সংঘর্ষের এক পর্যায়ে মাথার হেলেমেট কেড়ে নিয়ে ও ইট দিয়ে পিটিয়ে এসআই জাহাঙ্গীর আলমের মাথাসহ শরীরের বিভিন্ন অংশ মারাত্মক জখম করে।

অপরদিকে গত বছরের ২০ ফেব্রুয়ারি হরতালের দায়িত্ব পালন করতে মহানগরীর ফায়ার সার্ভিস মোড়ে সিটি করপোরেশনের গাড়ীর ধাক্কায় মোটরসাইকেল থেকে পড়ে গিয়ে ট্রাফিক পুলিশের ইন্সপেক্টর নজরুল ইসলামের হাত ভেঙে গিয়েছিল।