ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় ১১টি গরুসহ আটক ২

0
72
cow

cowব্রাহ্মণবাড়িয়ার আশুগঞ্জ উপজেলার খড়িয়ালা গ্রাম থেকে ১১টি গরুসহ দুই চোরকে আটক করেছে পুলিশ। রোববার ভোর রাতে খড়িয়ালা গ্রামের খাজা অটোরাইছ মিলের পিছনের একটি মাটির গর্ত থেকে এসব গরু উদ্ধারসহ চোরদের আটক করা হয়।

আটক ব্যক্তিরা হল উপজেলার খড়িয়ালা গ্রামের ইউসুফ মিয়ার পুত্র সুমন (২৫) এবং হবিগঞ্জ জেলার শায়েস্তাগঞ্জ উপজেলার হাজীরগাঁও গ্রামের ইসরাইল মিয়ার পুত্র গাজী মিয়া (৪০)। আটক ব্যক্তিদেরকৃতদের জেলহাজতে প্রেরণ করা হলেও উদ্ধারকৃত গরুগুলো থানা হেফাজতে রয়েছে।

পুলিশ ও প্রত্যক্ষদর্শী সূত্রে জানা যায়, ব্রাহ্মণবাড়িয়া, কিশোরগঞ্জ ও হবিগঞ্জ এলাকায় গরু চুরি ব্যাপকভাবে বেড়ে চলেছে। প্রতিরাতেই বিভিন্ন গ্রাম থেকে চুরি হচ্ছে গরু।

জানা গেছে, একটি আন্ত:জেলা গরু চোর সিন্ডিকেট বেশ কিছু দিন ধরে দেশের বিভিন্ন জেলা হতে গরু চুরি করে উপজেলার খড়িয়ালা এলাকার খাজা অটোরাইছ মিলের পিছনের একটি গর্তে রেখে বিক্রি করে আসছে। গোপন সংবাদের ভিত্তিতে খবর পেয়ে আশুগঞ্জ থানার এস আই নাসির উদ্দিন শরীফের নেতৃত্বে একটি দল অভিযান চালিয়ে ৮টি গরুসহ সুমন মিয়াকে গ্রেপ্তার করে। পরে তার স্বীকারোক্তির ভিত্তিতে এসব গরুর বিক্রেতা হিসেবে হবিগঞ্জ জেলার শায়েস্তা উপজেলার গাজী মিয়াকে গ্রেপ্তার এবং উপজেলার বগইগর গ্রাম থেকে বিক্রি হওয়া আরও ৩টি গরু উদ্ধার করা হয়।

আশুগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা গোলাম ফারুক জানান, এরা আন্ত:জেলা গরু চোর চক্রের সদস্য। দীর্ঘদিন ধরে তারা এ অপকর্ম করে আসছিল। গ্রেপ্তারকৃতদের জেলহাজতে পাঠানো হয়েছে।

কেএফ