মোবাইল কোম্পানির রাজস্ব কমেছে

0
37

GP_Robi_BLink_ATelরাজনৈতিক অস্থিরতার ছোঁয়া লেগেছে টেলিকম ব্যবসায়। ডিসেম্বরে সমাপ্ত প্রান্তিকে (অক্টোবর-ডিসেম্বর) দেশের শীর্ষ মোবাইল ফোন অপারেটরগুলোর আয় কমেছে। গ্রামীণফোন, রবি, বাংলালিংক-সবাই আছে এ তালিকায়। তবে আয় কমলেও তার হার ছিল খুবই কম।

টেলিকম খাতের নিয়ন্ত্রক সংস্থা বাংলাদেশ টেলিকম রেগুলেটরি কমিশন (বিটিআরসি) সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে। বিধি অনুসারে প্রতিটি মোবাইল ফোন অপারেটরকে সরকারের সঙ্গে রাজস্ব ভাগাভাগি করতে হয়। প্রাপ্ত রাজস্বের সাড়ে ৫ শতাংশ দিতে হয় সরকারকে। এ তথ্য বিশ্লেষণ করেই কোম্পানিগুলোর রাজস্ব আয়ের চিত্র পাওয়া গেছে।

আলোচিত প্রান্তিকে গ্রামীণ ফোন রাজস্বের ভাগ হিসেবে সরকারকে দিয়েছে ১৩৫ কোটি টাকা। এ হিসেবে কোম্পানির মোট রাজস্বের পরিমাণ দাঁড়ায় দুই হাজার ৪৫৫ কোটি টাকা। আগের প্রান্তিকে এ কোম্পানি ১৩৮ কোটি টাকা রাজস্ব দিয়েছিল। ওই সময় মোট রাজস্ব ছিল আড়াই হাজার কোটি টাকার বেশি।

গত প্রান্তিকে রবি রাজস্ব হিসেবে সরকারকে দিয়েছে ৫৭ কোটি টাকা। এ হিসেবে কোম্পানির মোট রাজস্ব দাঁড়ায় এক হাজার ২২০ কোটি টাকা। আগের প্রান্তিকে কোম্পানি সরকারকে ৫৮ কোটি টাকা রাজস্ব দিয়েছিল।

বাংলালিংকের কাছ থেকে গত প্রান্তিকে সরকার রাজস্বের ভাগ পেয়েছে ৫২ কোটি টাকা। এ হিসেবে কোম্পানিটির মোট রাজস্ব আয় হওয়ার কথা ৯৪৫ কোটি টাকা। আগের প্রান্তিকেও প্রতিষ্ঠানটির মুনাফা প্রায় কাছাকাছি ছিল।

অপর অপারেটর এয়ারটেলের ব্যবসার চিত্রও প্রায় অভিন্ন।

বিশ্লেষকদের মতে, রাজনৈতিক অস্থিরতায় স্বাভাবিক কর্মকাণ্ড ব্যাহত হওয়ায় টেলিকম কোম্পানিগুলোর ব্যবসায়ও তার প্রভাব পড়েছে।