খুলনায় গণধোলাইয়ে নিহত ২ ছিনতাইকারী

0
82
Khulna
গুগল মানচিত্রে খুলনা জেলা।
খুলনার তেরখাদা উপজেলায় গণধোলাইয়ের পর চিকিৎসাধীন অবস্থায় ২ ছিনতাইকারীর মৃত্যু হয়েছে। উপজেলার মোকামপুর এলাকায় শনিবার সকাল ৯টার দিকে ৪ ছিনতাইকারীকে গণধোলাই করে জনতা।

Khulna
গুগল মানচিত্রে খুলনা জেলা।

স্থানীয় জানান, মোকামপুর এলাকার এক ব্যবসায়ী কাছ থেকে ২ লাখ ১০ হাজার টাকা ছিনিয়ে পালিয়ে যাওয়ার সময় ৪ ছিনতাইকারীকে আটক করে স্থানীয়রা। এরপর তাদেরকে গণধোলাই করে উত্তেজিত জনতা।

তেরখাদা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. রফিকুল ইসলাম জানান, গণধোলাইয়ের পর খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হলে চিকিৎসাধীন অবস্থায় ২ ছিনতাইকারীর মৃত্যু হয়েছে। নিহতদের মধ্যে একজনের নাম সাকু। অপরজনের পরিচয় জানা যায়নি। আহতরা হলেন- রূপসার নৈহাটির খালেক শেখের ছেলে আলী আকবর (৩৮), রামপালের গৌরম্ভার মোজাফফরের ছেলে জিল্লু (৩০)।

খুলনা জেলা গোয়েন্দা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) ত.ম. রোকনুজ্জামান জানান, শনিবার সকাল ৯টার দিকে রূপসার আইচগাতী ইউনিয়নের আলাইপুর বাজারের চাল ব্যবসায়ী অশোক কর্মকার ২ লাখ ১০ হাজার টাকা নিয়ে অটোযোগে খুলনার দিকে যাচ্ছিলেন। পল্লী বিদ্যুত অফিসের সামনে ২টি মটরসাইকেলে নিয়ে ৬ ছিনতাইকারী তার গতিরোধ করে। অস্ত্র ঠেকিয়ে ওই ব্যবসায়ীর টাকা ছিনিয়ে নিয়ে দ্রুত ঘটনাস্থল ত্যাগ করে।

তিনি বলেন, মোবাইল ফোনে খবর পেয়ে তেরখাদার মোকামপুর বাজারে জনতা ছিনতাইকারীদের আটক করে। এসময় ছিনতাইকারীরা এলোপাতাড়ি গুলি চালায়। ছিনতাইকারীর গুলিতে পল্লী চিকিৎসক আলমগীর হোসেন বাচ্চু আহত হয়েছেন। এক পর্যায়ে ৪ ছিনতাইকারীকে আটক করে জনতা। অপর ২ জন পালিয়ে গেছে। জনতার গণপিটুনিতে ছিনতাইকারীরা গুরুতর আহত হয়। পুলিশ তাদের উদ্ধার করে খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করে। চিকিৎসাধীন অবস্থায় দুই জন মারা গেছে।

এমই/